Tuesday, June 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে জেলেপল্লীর মারুফার

৭ এপ্রিল ঢাকা ট্রিবিউনে মারুফাকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে নাভানা গ্রুপের পক্ষ থেকে মারুফার পড়াশোনার জন্য অর্থ সহায়তার ঘোষণা দেওয়া হয়

আপডেট : ১২ এপ্রিল ২০২২, ০৩:১২ পিএম

সাতক্ষীরার নলতা জেলেপল্লীর মেধাবী ও দরিদ্র মারুফা খাতুনকে মেডিকেলে ভর্তিসহ আনুষঙ্গিক খরচ হিসেবে ১ লাখ টাকা সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে বেসরকারি কোম্পানি নাভানা গ্রুপ। 

রবিবার (১০ এপ্রিল) নাভানা গ্রুপের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে মারুফা ও তার পরিবারের কাছে এই অর্থ পৌঁছে দেওয়া হবে বলে গ্রুপের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

এর আগে, গত ৭ এপ্রিল ঢাকা ট্রিবিউনে অদম্য এই শিক্ষার্থীর পরিবারের অর্থাভাব নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হলে নাভানা গ্রুপ থেকে মারুফাকে অর্থ সহায়তার ঘোষণা দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে নাভানা গ্রুপের প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আরফাদুর রহমান বান্টি ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, “মারুফার চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন যেন বৃথা না হয়ে যায় সেজন্যই নাভানা পরিবারের পক্ষ থেকে এই আয়োজন। মারুফার স্বপ্নপূরণে তাকে প্রাথমিকভাবে ১ লাখ টাকা অনুদান দেওয়া হবে। পাশাপাশি শিক্ষা সংক্রান্ত আনুসাঙ্গিক ব্যয়ভার গ্রহণ করার সিদ্ধান্তও নিয়েছে নাভানা পরিবার। ধন্যবাদ ঢাকা ট্রিবিউনকে এমন অদম্য মেধাবীর গল্প তুলে ধরার জন্য।”

উল্লেখ্য, এ বছর মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে সুযোগ পেলেও ভর্তি ও লেখাপড়ার খরচ নিয়ে দুচিন্তায় ছিলেন সাতক্ষীরার তালা উপজেলার জেয়ালা গ্রামের জেলেপল্লীর অদম্য মেধাবী শিক্ষার্থী মারুফা খাতুন।

তালার নলতা জেলে পল্লীর মৎস্যজীবী বাবা আজিত বিশ্বাস ও গৃহিণী তাসলিমা বেগমের তিন সন্তানের মধ্যে সবার বড় মারুফা।

২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় ৭৪ স্কোর নিয়ে ৩ হাজার ৫৩৪তম স্থান অধিকারী হয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন তিনি।

মারুফা তালা মহিলা কলেজ থেকে জিপিএ ৫ পেয়ে উচ্চ মাধ্যমিক এবং শহীদ আলী আহম্মাদ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জিপিএ ৫ পেয়ে মাধ্যমিকে উত্তীর্ণ হন।

About

Popular Links