Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

যেভাবে বুঝবেন শরীরে ভিটামিন ডি’র ঘাটতি রয়েছে

গবেষণায় দেখা গেছে, কম বয়সীদের শরীরে ভিটামিন ডি’র অভাবজনিত কারণে অবসাদগ্রস্ত হওয়ার সম্পর্ক রয়েছে

আপডেট : ২২ আগস্ট ২০২২, ০৬:২৭ পিএম

একজন মানুষকে শারীরিকভাবে সুস্থ থাকার জন্য ভিটামিন ডি’র প্রয়োজনীয়তা অপরিহার্য। এর অভাবে শরীরে নানান রকমের অসুস্থতা দেখা দিতে পারে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে ঘন ঘন রোগ হওয়া, সংক্রমণ, অবসাদ, হাড় ও কোমর ব্যথা ইত্যাদি।

বর্তমান সময়ে অধিকাংশ মানুষের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করলে দেখা যাবে কোনো না কোনো ভিটামিনের অভাবে ভুগছেন। তবে শিশুরা সবচেয়ে বেশি ভিটামিন ডি’র ঘাটতির শিকার। তাদের পরেই রয়েছেন গর্ভবতী ও স্তন্যদানকারী মহিলারা।

গবেষণায় দেখা গেছে, কম বয়সীদের শরীরে ভিটামিন ডি’র অভাবজনিত কারণে অবসাদগ্রস্ত হওয়ার সম্পর্ক রয়েছে। যাদের শরীরে ভিটামিন ডি’র অভাব রয়েছে তারা অল্পতেই ক্লান্ত হয়ে পড়েন। ভিটামিন ডি শরীরে ক্যালসিয়াম শোষণে সাহায্য করে।

শরীরে ভিটামিন ডি কম থাকলে যা যা হতে পারে

১. কোমর, ঘাড়, পিঠে অসহ্য যন্ত্রণা হতে পারে।

২. মাংসপেশিতে টান অনুভব হতে পারে, সঙ্গে থাকবে ব্যথাও।

৩. প্রতিটি গাঁটে ব্যথা অনুভূত হবে, কারণ শরীরে ভিটামিন ডি এর ঘাটতি থাকলে হাড় ক্ষয় হয়। এমনকি হাড় ভেঙেও যেতে পারে। এছাড়াও হাড়ের গঠন নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

৪. মানসিক অবসাদ দেখা দিতে পারে।

৫. আচমকা বেড়ে যেতে পারে আপনার ওজন।

৬. ক্ষত শুকাতে সময় লাগবে।

৭. অস্বাভাবিক মাত্রায় চুল ঝরে যেতে পারে।

৮. অল্প কাজেই ক্লান্ত লাগবে।

আপনার শরীরে যদি এই লক্ষণগুলো থাকে, তাহলে এখনই সতর্ক হতে হবে। যতো দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং একটি ভিটামিন ডি’র পরীক্ষা করিয়ে নিন।

যেভাবে পাবেন সঠিক পরিমাণে ভিটামিন ডি

ভিটামিন ডি পাওয়ার জন্য মিনারেলযুক্ত খাবার খেতে হবে। সূর্যের আলোতেও আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ডি। এছাড়াও দুধ, বা দুগ্ধজাতীয় জিনিস খেতে হবে বেশি করে। সঙ্গে মাছ, মাংস, ডিমের কুসুম।

About

Popular Links