Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

খেজুরের স্মুদি আর পুডিং বানান সহজেই

বাড়িতেই  তৈরি করতে পারেন খেজুরের পুডিং আর খেজুরের স্মুদি

আপডেট : ১৬ এপ্রিল ২০২৩, ০৪:১৮ পিএম

সেহরি ও ইফতারে খেজুর খুবই জনপ্রিয় একটি ফল। আর এই খেজুর দিয়েই তৈরি করা যায় ভিন্ন ভিন্ন রেসিপি। বাড়িতেই তৈরি করতে পারেন খেজুরের পুডিং আর স্মুদি। চলুন দেখে নেওয়া যাক-

খেজুরের পুডিং

উপকরণ:

  • ৩০০ গ্রাম পিটেড খেজুর
  • ১ চা চামচ বেকিং সোডা
  • পানি ১ কাপ
  • ১/২ কাপ হালকা বাদামী চিনি
  • ৮০ গ্রাম মাখন
  • ২ টি ডিম
  • ১ চা চামচ ভ্যানিলা এসেন্স
  • ১ এবং ১/৪ কাপ ময়দা
  • ১ এবং ১/২ চা চামচ বেকিং পাউডার
  • ১/২ চা চামচ লবণ

টফি সস:

  • ১/৩ কাপ আনসল্টেড মাখন
  • ১ কাপ ভারি ক্রিম
  • ৩/৪ কাপ বাদামী চিনি
  • ১ চা চামচ ভ্যানিলা নির্যাস
  • ১/২ চা চামচ লবণ

প্রস্তুত প্রণালী:

  • প্রথমে খেজুর, গরম পানি আর বেকিং সোডা একসাথে নিয়ে ১০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। খেজুর নরম হয়ে গেলে, কাঁটা চামচ দিয়ে স্ম্যাশ করে একটি ঘন পেস্ট তৈরি করুন। 
  • একটি বড় পাত্রে খেজুরের পেস্ট, নরম মাখন, ব্রাউন সুগার এবং ভ্যানিলা এসেন্স যোগ করুন এবং মিশ্রণটি মসৃণ হওয়া পর্যন্ত নাড়ুন।
  • মিশ্রণে শুকনো উপাদান যোগ করুন এবং একটি ঘন ব্যাটার তৈরি না হওয়া পর্যন্ত ভাঁজ করুন।
  • একটি বেকিং ট্রে নিয়ে তাতে মিশ্রণটি ঢেলে দিন এবং একটি প্রিহিটেড ওভেনে ৩৫ মিনিটের জন্য ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে বেক করুন।
  • পুডিং বেক করটে করতে আপনি টফি সস তৈরি করতে পারেন। মাঝারি আঁচে একটি পাত্রে মাখন, ক্রিম, ব্রাউন সুগার, লবণ এবং ভ্যানিলা এসেন্স যোগ করুন। ৩-৪ মিনিটের জন্য আঁচে আনুন। সস ঘন হয়ে গেলে আঁচ থেকে  নামিয়ে পুডিং না হওয়া পর্যন্ত একপাশে রেখে দিন।
  • পুডিং হয়ে গেলে, ১৫ মিনিটের জন্য ঠাণ্ডা হওয়ার জন্য রেখে দিন।
  • পুডিংয়ের উপর প্রায় অর্ধেক টফি সস ঢেলে দিন এবং ৩০মিনিটের জন্য ভিজিয়ে রাখুন।আইসক্রিমের স্কুপ এবং আরও সস দিয়ে পুডিং পরিবেশন করুন।

খেজুরের স্মুদি

উপকরণ:

  • ১টি কলা
  • ৫টি খেজুর
  • ১ টেবিল চামচ দই
  • মধু ১ চা চামচ
  • দারুচিনি ১ চা চামচ
  • আইস কিউব
  • দুধ ১/২ কাপ

প্রস্তুত প্রণালী:

উপকরণগুলো আপনি নিজের মতো করে কম বেশি করতে পারেন। স্মুদি তৈরি করতে ব্লেন্ডারে সবগুলো উপকরণ  কলা, খেজুর,টেবিল চামচ দই, মধু, দারুচিনি, দুধ, আইস কিউব নিয়ে ভালভাবে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর আইস কিউব দিয়ে পরিবেশন করুন।

এভাবে করে আপনি এ রমজানে তৈরি করে নিতে পারেন খেজুরের এ দুইটি ভিন্ন স্বাদের মজাদার রেসিপি। রেসিপি দুইটি যেমন মজাদার তেমনি পুষ্টিকর। 






About

Popular Links