Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

লঞ্চে অগ্নিকাণ্ড: অভিযান-১০ এর ইঞ্জিন রুম থেকেই ছড়ায় আগুন

অভিযান-১০ লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত লঞ্চটির ইঞ্জিন কক্ষ থেকে হয়েছে বলে জানিয়েছেন এ ঘটনায় নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক যুগ্ম সচিব মো. তোফায়েল ইসলাম

আপডেট : ২৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:৪৪ পিএম

ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে ঢাকা থেকে বরগুনাগামী এমভি অভিযান-১০ লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আর ভয়াবহ এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত লঞ্চটির ইঞ্জিন কক্ষ থেকে হয়েছে বলে জানিয়েছেন এ ঘটনায় নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক যুগ্ম সচিব মো. তোফায়েল ইসলাম।

রবিবার (২৬ ডিসেম্বর) বরগুনার সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলতে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান তিনি।

মো. তোফায়েল ইসলাম বলেন, “ঝালকাঠিতে মর্মান্তিক লঞ্চ দুর্ঘটনার বিষয়টি আমরা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। একাধিকবার ঘটনাস্থল ও লঞ্চ পরিদর্শন করেছি। প্রাথমিকভাবে আমাদের কাছে মনে হয়েছে ইঞ্জিন কক্ষ (রুম) থেকেই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে। পরবর্তীতে আরও কিছু বিষয়ের কারণে এটি ছড়িয়ে পড়েছে।”

তিনি বলেন, “তদন্ত এখনও চলমান। আমরা আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি যাতে একটি সুষ্ঠু তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা উদঘাটন করা যায়।” দুর্ঘটনা কবলিত লঞ্চের কোনো স্টাফের সঙ্গে তারা এখনও কথা বলতে পারেননি বলেও জানান তিনি।

এর আগে শনিবার ইঞ্জিন রুমে কিছু ত্রুটি দেখতে পায় বলে জানায় নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটি। তবে এর ওপর ভিত্তি করে অগ্নিকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত কিছু বলতে চাননি তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক ও নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মো. তোফায়েল ইসলাম।

শনিবার ইঞ্জিন রুমের ত্রুটির বিষয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “সেটা কি এবং কেন হয়েছে তার লিংকআপ করতে হবে। কারণ প্রাথমিকভাবে যা পেয়েছি সেটাকে লিংকআপ না করে মূল সিদ্ধান্তে উপনীত হতে পারবো না। অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা ছিল কি-না, সেটাও আমরা খতিয়ে দেখছি। কমিটির প্রতিবেদনে সবকিছু উল্লেখ করা হবে।”

এদিকে এমভি অভিযান-১০ লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিখোঁজদের সন্ধানে টানা তৃতীয় দিনের মতো উদ্ধার অভিযান চলছে।

ঝালকাঠি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খলিলুর রহমান জানিয়েছেন, সুগন্ধা নদীতে ঘটনাস্থলের অংশ পাশের এলাকায় উদ্ধার অভিযান অব্যাহত আছে। তিনি বলেন, “বেলা ১১টা পর্যন্ত নদী থেকে নতুন করে আর কোনো লাশ উদ্ধার হয়নি।”

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে সুগন্ধা নদীর গাবখান ধানসিঁড়ি এলাকায় লঞ্চটিতে আগুন লাগে। লঞ্চের একাধিক যাত্রী জানান, রাত ৩টার দিকে লঞ্চের ইঞ্জিনরুমে হঠাৎ আগুন লেগে যায়। ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়ে পুরো লঞ্চে। এ সময় অনেক যাত্রী দগ্ধ হন। প্রাণ বাঁচাতে বেশ কয়েকজন নদীতে ঝাঁপ দেন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪১ জনের মরদেহ উদ্ধারের খবর পাওয়া গেছে।

About

Popular Links