Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

শৌচালয়ে বসে মোবাইল ফোনের ব্যবহারে বাড়ছে যেসব রোগের ঝুঁকি

অফিসের মেইল থেকে শুরু করে বন্ধুদের সঙ্গে চ্যাটিং, অনেকেই সেরে ফেলেন শৌচালয়ে বসে

আপডেট : ১৩ ডিসেম্বর ২০২৩, ০২:১৭ পিএম

মোবাইল ফোন আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হয়ে উঠেছে। যোগাযোগ সহজ করার পাশাপাশি গোটা পৃথিবীটাকেই যেন হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে বিজ্ঞানের এই বিস্ময়। তবে অতিমাত্রায় মোবাইল ফোনের ব্যবহার ক্ষতির কারণও বটে। বিশেষজ্ঞরা তাই প্রয়োজনের অতিরিক্ত মোবাইল ফোনের ব্যবহারে নিরুৎসাহিত করছেন বারংবার। বিশেষ করে মোবাইল ফোনের ব্যবহার যাদের জন্য আসক্তির পর্যায়ে পৌঁছে গেছে, তাদের সতর্ক হওয়া বেশি প্রয়োজন।

এমন কেউ কেউ তো আছেনই যারা সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকে ঘুমানো অবধি মোবাইল ফোন হাতছাড়াই করেন না। এমনকি শৌচাগারেও তারা মোবাইল ফোন নিয়ে ঢোকেন। অফিসের মেইল থেকে শুরু করে বন্ধুদের সঙ্গে চ্যাটিং সবটাই তারা সেরে ফেলেন শৌচাগারে বসেই। চলুন, জেনে নেওয়া যাক শৌচালয়ে মোবাইল ফোন ব্যবহার করলে কী কী ক্ষতি হতে পারে শরীরের-

শৌচালয়ে মোবাইল ফোন নিয়ে যাচ্ছেন মানেই মনোযোগ ফোনের ওপরই পড়ছে। ঘাড় ঝুঁকিয়ে ফোনের দিকে টানা তাকিয়ে থাকার ফলে ঘাড় ও শিরদাঁড়ার ক্ষতি হয়। দীর্ঘক্ষণ কমোডে বসে থাকলে মলদ্বারের উপর অযথা চাপ পড়ে। এর ফলে অর্শের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

শৌচালয়ে নানা ধরনের জীবাণু থাকে। আর্দ্র পরিবেশের কারণে সালমোনেলার মতো বিভিন্ন ধরনের ব্যাক্টেরিয়া বা ছত্রাক শৌচালয়ে বেশি মাত্রায় বাসা বাঁধে। তার মধ্যে মোবাইল ফোন নিয়ে ঢুকলে সেই সব জীবাণু অতিসক্রিয় হয়ে ফোনেও নিজেদের বংশবিস্তার করে। বিশেষ করে ফোনের কভারে এদের বাড়বাড়ন্ত হয়। ওই ফোন ব্যবহার করলে নানা ধরনের সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

শৌচালয়ে ফোন নিয়ে যাওয়ার অভ্যাস শরীরের স্বাভাবিক অভ্যন্তরীণ ক্রিয়াকলাপে ব্যাঘাত ঘটায়। এর ফলে পেটে নানা রকম সমস্যা দেখা দিতে শুরু করে। পেটখারাপ, ডায়েরিয়া, বমির মতো সমস্যা হতে পারে। অনেকের আবার পেট পরিষ্কার হয় না। ফলে গ্যাস, অম্বল, বদহজমের সমস্যা বেড়ে যায়।

ঘুম থেকে ওঠা থেকে ফোনের সঙ্গে সংযোগ শুরু হয়ে যায়। আবার যত ক্ষণ না দু’চোখে ঘুম নেমে আসছে, মোবাইল ফোনের আলো জ্বলছেই। শৌচালয়ে থাকার সময়ে ফোন কাছে না রাখলে আপনি খানিকটা হলেও মানসিক স্বস্তি পাবেন। কিছুটা সময়ে ফোন থেকে দূরে থাকলে ভাবনাচিন্তার বিকাশ বাড়বে। ফোন সঙ্গে রাখলে আপনার মানসিক চাপ আরও বাড়বে।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

About

Popular Links