Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বসের সিদ্ধান্তে একমত না হলে নিজের যুক্তি তুলে ধরবেন যেভাবে

বসের মুখের ওপর একমত না হওয়ার কথা বলে দিলে তিনি রেগে যেতে পারেন

আপডেট : ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪২ পিএম

পেশাগত জীবনে মানুষের একটা বড় সময় কাটে কর্মক্ষেত্রে। তাই কর্মক্ষেত্রের প্রতিটি বিষয় দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। বিশেষজ্ঞদের মতে, কর্মক্ষেত্রে নানা টানাপোড়েন ও উদ্বেগ মানসিক অবসাদের অন্যতম কারণ।

কর্মক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো সবচেয়ে বেশি মানসিক চাপ তৈরি করে, তার মধ্যে অন্যতম হলো বসের সঙ্গে মতের অমিল।

প্রতিটি মানুষই স্বতন্ত্র। তাই মানুষভেদে ভাবনা বা চিন্তাধারাও আলাদা। এজন্য বসের সব কথাই আপনার মনের মতো হবে, এমনটা ভাবার সুযোগ নেই। তবে, বস যে সব সময়ই ঠিক সিদ্ধান্ত নেন, তেমনটিও নয়। তাই, আপনি যে বসের সিদ্ধান্তের সঙ্গে সহমত নন, সেটাও বসকে জানানো জরুরি। কিন্তু বসের মুখের ওপর সে কথা বলে দিলে তিনি রেগে যেতে পারেন কিংবা বিরক্ত হতে পারেন।

সেক্ষেত্রে একটু কৌশলে বসের কাছে আপনার যুক্তি তুলে ধরতে হবে; যাতে বস রাগও হবে না, আবার আপনার কাজটিও হয়ে যাবে। চলুন, জেনে নেওয়া যাক সে সম্পর্কে-

তর্ক করা যাবে না

ভুলেও বসের সঙ্গে তর্ক করবেন না। বসকে বোঝানোর আগে নিজের কাছে বিষয়টি পরিষ্কার হতে হবে। বসের সিদ্ধান্তের সঙ্গে আপনি কেন সহমত হতে পারছেন না, আগে নিজের কাছে সেই যুক্তিগুলো তৈরি রাখুন।

মাথা ঠান্ডা রাখতে হবে

আলোচনার সময় মেজাজ হারালে চলবে না। আপনার যুক্তির সাপেক্ষে বসও যুক্তি দিতে পারেন। বসের সঙ্গে তর্কে না গিয়ে মন দিয়ে তার কথাগুলো ভালো করে বোঝার চেষ্টা করুন। হতেই পারে, আপনার বসের কথাটাই ঠিক।

সঠিক সময়ের অপেক্ষা

সময়-সুযোগ বুঝে কথা বলুন। কনফারেন্স রুমে ঘরভর্তি লোকের সামনে আপনি বসের সঙ্গে সহমত হতে পারছেন না, সেই কথা ভুলেও বলতে যাবেন না। যখন দেখবেন, বসের মন-মেজাজ ভালো আছে, কিংবা একা আছেন; তখন এই বিষয়ে তার সঙ্গে কথা বলুন।

যুক্তি তৈরি রাখুন

“বস, আপনার সঙ্গে আমি সহমত হতে পারছি না”, এই কথাটা তখনই বলুন, যখন আপনি পাল্টা যুক্তি দিতে তৈরি। ঠান্ডা মাথায়, নিচুস্বরে আপনার যুক্তিগুলো বসের সামনে তুলে ধরুন। মনে রাখবেন, বসকে ছোট করা আপনার উদ্দেশ্য নয়, আপনার যুক্তিগুলো যে ভুল নয়, সেটাই তাকে বোঝাতে হবে।

মধ্যস্থতায় আসুন

এমন পরিস্থিতি আসতেই পারে, যখন বস আপনার কথা কিছুতেই মানতে চাইছেন না। এ রকমটা হলে জেদ ধরে বসে থাকলে চলবে না। কাজের যেন কোনো ক্ষতি না হয়, সেই যু্ক্তি বসের সামনে রেখে মাঝামাঝি কোনো একটা পথ খোঁজার চেষ্টা করুন। আপনি কীভাবে সেই কথাটি বসের সামনে তুলে ধরছেন, তাতেই আপনার বুদ্ধিমত্তা প্রকাশ পাবে।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

About

Popular Links