• বুধবার, নভেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:৪৩ বিকেল

আইনমন্ত্রী: সংলাপে বসতে বিদেশি চাপ নেই

  • প্রকাশিত ০৬:৪৯ সন্ধ্যা অক্টোবর ৩০, ২০১৮
Law Minister
আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। ছবি: ফাইল ছবি/ঢাকা ট্রিবিউন

"গণতান্ত্রিক দেশে রাজনীতি করার অধিকার সকলের আছে।"

ঐক্যফ্রন্টের সাথে সংলাপের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তে বিদেশি কোনও চাপ ছিল না বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক।

মঙ্গলবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের কায়েমপুর এলাকায় জেলা কারাগারের পাশে জেলা রেজিস্ট্রেশন কমপ্লেক্সের নবনির্মিত ৪ তলা ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

ঐক্যফ্রন্টের সাথে প্রধানমন্ত্রীর সংলাপ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, “কিছুদিন আগে ঐক্যফ্রন্ট বলে একটা জোট হয়েছে, ভালো কথা। গণতান্ত্রিক দেশে রাজনীতি করার অধিকার সকলের আছে। তাদের অতীত ইতিহাস সকলের জানা, তারা দিনের বেলায় এক কথা বলে, রাতের বেলায় এক কথা বলে।”

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, “তারা প্রধানমন্ত্রীকে পত্র দিয়েছেন তারা সংলাপ চান। প্রধানমন্ত্রী সেই সংলাপের প্রত্যাশার উত্তর দিয়েছেন, অনেক রক্তের বিনিময়ে, অনেক ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষায় সংবিধান সম্মত রেখে আলোচনার দরজা সবসময় উন্মুক্ত।” 

খালেদা জিয়ার নির্বাচনে অংশ নেয়ার বিষয়ে আনিসুল হক বলেন, “সংবিধানে বলা আছে নৈতিক স্খলনের জন্য কোনো ব্যক্তিকে যদি আদালত দুই বছরের অধিক সাজা দেন তাহলে তিনি সাজা খাটার পর পাঁচ বছর পর্যন্ত জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না। এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের দুটি রায় আছে। একটি রায়ে বলা আছে যদি তিনি উচ্চ আদালতে আপিলের আবেদনের প্রেক্ষিতে সাজা স্থগিত করেন তাহলে নির্বাচন করতে পারবেন। আরো একটি বিভক্ত রায়ে একজন বিচারক বলেছেন নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন, অপর একজন বিচারক বলেছেন তিনি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না। সুতরাং বেগম খালেদা জিয়ার নির্বাচন করার ব্যাপারে আদালতই সিদ্ধান্ত দিতে পারবেন।”

বাংলাদেশ নিবন্ধন এর মহাপরিদর্শক ড. খান মো. আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সদর-বন্দর আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান, আড়াইহাজার আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট হোসনে আরা বাবলি, জেলা প্রশাসক রাব্বি মিয়া, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলাম প্রমুখ।