• শনিবার, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫২ রাত

ড. কামাল: স্মৃতিস্তম্ভের কাছে হামলা শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি অপমান

  • প্রকাশিত ০৫:৪১ সন্ধ্যা ডিসেম্বর ১৪, ২০১৮
dr kamal
শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) রাজধানীর পুরানাপল্টনে ঐক্যফ্রন্টের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ড. কামাল হোসেন। ছবি- ইউএনবি

ড. কামাল বাড়ি ফেরার জন্য স্মৃতিস্তম্ভের গেটের কাছে পৌঁছালে তার গাড়িতে স্থানীয় ঢাকা-১৪ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী আসলামুল হকের সমর্থকরা লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালান

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট প্রধান ড. কামাল হোসেন শুক্রবার সকালে মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিস্তম্ভের কাছে তার গাড়িবহরে হামলার ঘটনাটিকে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি গুরুতর অপমান বলে বর্ণনা করেছেন।

শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেলে রাজধানীর পুরানাপল্টনে ঐক্যফ্রন্টের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ড. কামাল সরকারকে ক্ষমতার অপব্যবহার বন্ধ করার আহ্বান জানান।

সকালে মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ফেরার পথে স্মৃতিস্তম্ভের কাছেই জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রধান নেতা ড. কামাল হোসেনের গাড়িবহরে হামলা করা হয়। এতে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। তবে হামলায় ড. কামালের কোনো ক্ষতি হয়নি।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মিডিয়া উইং সদস্য লতিফুল বারি হামীম জানান, ড. কামাল জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, গণফোরাম নেতা জগলুল হায়দার আফ্রিক ও রেজা কিবরিয়াকে সাথে নিয়ে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

হামীম আরও জানান, ড. কামাল বাড়ি ফেরার জন্য স্মৃতিস্তম্ভের গেটের কাছে পৌঁছালে তার গাড়িতে স্থানীয় ঢাকা-১৪ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী আসলামুল হকের সমর্থকরা লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালান। সরকারি দলের লোকেরা আ স ম আব্দুর রব, জগলুল হায়দার আফ্রিক ও ঢাকা-১৪ আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী আবু বকর সিদ্দিক সাজুকে বহনকারী গাড়িতেও হামলা চালায়। 

এসময় আক্রমণ প্রতিহত করতে গিয়ে সাজু ও রবের গাড়িচালকসহ বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের ১০-১২ জন নেতাকর্মী আহত হন। রবের গাড়িচালকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।