• মঙ্গলবার, মার্চ ৩১, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৫৯ সন্ধ্যা

রিজভী: গতকাল ছিল বিএনপি প্রার্থীদের জন্য সবচেয়ে ভয়ঙ্কর দিন

  • প্রকাশিত ০১:৩৬ দুপুর ডিসেম্বর ২৫, ২০১৮
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।  ফাইল ছবি
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ফাইল ছবি

"যারা মানুষকে নিরাপত্তা দেবে সে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীই মানুষকে নিরাপত্তাহীন করে তুলছে"

সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) বিএনপি প্রার্থীদের জন্য সবচেয়ে ভয়ঙ্কর দিন ছিল বলে দাবি করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। 

তিনি অভিযোগ করে বলেন, “দেশের বিভিন্ন স্থানে ধানের শীষের প্রার্থীদের প্রচার ও সমাবেশে সবচেয়ে বেশি হামলার ঘটনা ঘটেছে সোমবার। একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর গতকাল ছিল বিএনপি প্রার্থীদের জন্য সবচেয়ে ভয়ঙ্কর দিন। হামলা করে, গুলি করে প্রার্থীদের রক্তাক্ত করেছে আওয়ামী সন্ত্রাসী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।”

মঙ্গলবার (২৫ ডিসেম্বর) বিএনপির নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, “২৪ ডিসেম্বর বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদের গাড়িতে হামলা করা হয়েছে। অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পান তিনি। দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান, যুগ্ম-মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন, ধানের শীষের প্রার্থী শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর ওপর হামলা হয়েছে। কিশোরগঞ্জের প্রার্থী মেজর (অব.) আক্তারুজ্জামান ও শরীফুল আলমের ওপর গুলি চালিয়েছে পুলিশ।” 

এছাড়া আরও কয়েক জেলায় প্রার্থীদের ওপর হামলা হয়েছে বলেও দাবি করেন রিজভী।

ভোটে আওয়ামী লীগের পক্ষে মাঠে কাজ করতে ডিসি, এসপি থেকে শুরু করে কনস্টেবল পর্যন্ত সর্বস্তরের পুলিশ সদস্যদের সরকারের পক্ষ থেকে প্রচুর নগদ টাকা বিতরণ করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন বিএনপির এই নেতা।

তিনি বলেন, “সারা দেশে ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। যারা মানুষকে নিরাপত্তা দেবে সে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীই মানুষকে নিরাপত্তাহীন করে তুলছে। এখন ভয়ঙ্কর আতঙ্কের নাম পুলিশ-র‍্যাব-বিজিবি। তাদের পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে সিইসিসহ কতিপয় কমিশনার।”