• শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৫৫ সকাল

৩০ মার্চ রাজধানীতে মানববন্ধন করবে ঐক্যফ্রন্ট

  • প্রকাশিত ০৯:৪০ রাত মার্চ ২২, ২০১৯
ঐক্যফ্রন্ট
ছবি: সংগৃহীত

পাশাপাশি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাতিলের দাবিতে এপ্রিলে সব বিভাগ এবং জেলায় জেলায় সমাবেশ ও গণশুনানি করবে ঐক্যফ্রন্ট।

গাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রস্তাব বাতিলসহ বিভিন্ন দাবিতে আগামী ৩০ মার্চ রাজধানীতে মানবন্ধন করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সকাল ১১টা থেকে জোটের বিভিন্ন শরিক দলের নেতা-কর্মীরা এ মানববন্ধনে অংশ নেবেন।

পাশাপাশি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাতিলের দাবিতে এপ্রিলে সব বিভাগ এবং জেলায় জেলায় সমাবেশ ও গণশুনানি করবে ঐক্যফ্রন্ট।

শুক্রবার বিকালে রাজধানীর পুরানা পল্টনে জোটের বৈঠক শেষে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না এসব কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

মান্না বলেন, নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সরকারের ব্যর্থতা, উপজেলা নির্বাচনে অব্যবস্থাপনা, ডাকসু নির্বাচনে শিক্ষার্থীদের ভোটের অধিকার হরণ, নির্বাচনী ব্যবস্থা ধ্বংস করে দেয়া ও দেশে অর্থনৈতিক বৈষম্যের প্রতিবাদে মানবন্ধন করা হবে।

 ‘‘পাশাপাশি আমাদের আন্দোলনকে ছড়িয়ে দিতে এপ্রিলে সব বিভাগের জেলায় জেলায় সমাবেশ ও গণশুনানি করা হবে’’, যোগ করেন তিনি।

ঐক্যফ্রন্ট নেতা মান্না বলেন, জাতীয় নির্বাচনের আগের রাতে ‘ভোটা ডাকাতির’ পর জনগণ নির্বাচনের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। এ জন্য তারা সাম্প্রতিক উপজেলা নির্বাচনে ভোট দিতে যাচ্ছেন না।

এমন পরিস্থিতি পুনর্নির্বাচনের দাবির ব্যাপারে জনগণকে বোঝাতে তাদের জোট আন্দোলন অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘‘আমাদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে বিজয় না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।’’

এছাড়া স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ঐক্যফ্রন্ট দুদিনের কর্মসূচি পালন করবে জানিয়ে মান্না বলেন, কর্মসূচির অংশ হিসেবে আগামী ২৬ মার্চ সকাল ৯টায় সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে জোটের নেতা-কর্মীরা শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করবেন।

আগামী ৩১ মার্চ বিকাল ৩টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে আলোচনা সভা করা হবে বলেও জানান নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক ও ঐক্যফ্রন্ট নেতা মান্না।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসিন মন্টু প্রমুখ।