• সোমবার, আগস্ট ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪২ সকাল

বিএনপি: খালেদার মুক্তি ও চিকিৎসা নিয়ে সরকার নিষ্ঠুর তামাশা করছে

  • প্রকাশিত ১০:৫৫ সকাল এপ্রিল ৯, ২০১৯
রুহুল কবির রিজভী। ছবি: সৌজন্য
বিএনপি'র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ফাইল ছবি

'সরকারের নির্দেশে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম খালেদা জিয়ার জামিনে বড় বাধা হিসেবে সক্রিয় ভূমিকা পালন করছেন'

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন অসুস্থ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা ও মুক্তি নিয়ে সরকার নিষ্ঠুর তামাশা করছে বলে অভিযোগ করেছে দলটি।

সোমবার বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, "স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুব-উল আলম হানিফের বিপরীতধর্মী মন্তব্য এটাই প্রকাশ করছে যে, তারা আমাদের নেত্রী খালেদা জিয়ার চিকিত্সা ও প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে নিষ্ঠুর তামাশা করছে"।

রিজভী বলেন, "চেয়ারপার্সনের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র পরিহার করে সরকারকে অবশ্যই তার নিঃশর্ত মুক্তি নিশ্চিত করতে হবে"।

তিনি সরকারকে হুশিয়ার করে বলেন, "মনে রাখবেন, এক মাঘে শীত যায় না। আপনাদের বিরুদ্ধে মানুষ ফুঁসে উঠছে। সুতরাং ভবিষ্যতের কথা ভাবুন। খালেদা জিয়ার মুক্তিতে কোনো বাধা ‍সৃষ্টি করবেন না"।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, যথাযথ চিকিৎসা না দেয়ায় বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি।

এসময় তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খালেদা জিয়াকে দুনিয়া থেকে না হয় রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিতে চান বলে অভিযোগ করেন তিনি। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, "খালেদার চিকিৎসা ও জামিনে বাধা দিতে সরকার ভয়ঙ্কর নীলনকশা করছে"।

জামিন পাওয়া তার সাংবিধানিক ও নাগরিক অধিকার উল্লেখ করে এই বিএনপি নেতা বলেন, "আদালতের ওপর সরকারের প্রভাবের কারণে খালেদা জিয়া জামিন বঞ্চিত হচ্ছেন। সরকারের নির্দেশে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম খালেদা জিয়ার জামিনে বড় বাধা হিসেবে সক্রিয় ভূমিকা পালন করছেন"।

উল্লেখ্য, এর আগে যেসব কারণে প্যারোলে মুক্তির জন্য আবেদন করা যায়, খালেদা জিয়া তার কোনোটিতেই পড়েন না বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ। 

হানিফের বক্তব্যের একদিন পরই রিজভী এসব মন্তব্য করলেন।

এর আগে শনিবার জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে নৌ থানা ভবনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, "সুনির্দিষ্ট কারণ দেখিয়ে আবেদন করলে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি সরকার বিবেচনা করবে।"

প্রসঙ্গতঃ দুর্নীতির একটি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে এক বছরের বেশি সময় ধরে পুরান ঢাকার সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দী রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।

অসুস্থতার কারণে গত ১ এপ্রিল তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করা হয়।