• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয় অবরুদ্ধ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ককটেল বিস্ফোরণ

  • প্রকাশিত ০২:১০ দুপুর জুন ২৪, ২০১৯
ছাত্রদল
সোমবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মূল ফটকের সামনে ছাত্রদলের দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার চিত্র। ঢাকা ট্রিবিউন

এসময় বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধও করে দেন তারা

বিএনপির ছাত্রসংগঠন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা দলটর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের বিদ্যুৎ–সংযোগ বন্ধ করে দিয়ে নয়াপল্টনে অবস্থান নিয়েছেন। 

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মূল ফটকের সামনে অবস্থান নেন। এরপর দুপুর পৌনে ১২টার দিকে ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের বিদ্যুৎ–সংযোগ বন্ধ করে দেন। বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি ও কাউন্সিলের তারিখ মানেন না জানিয়ে বিক্ষোভে অংশ নেন তারা। এসময় ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির সাবেক নেতাদের নেতৃত্ব দিতে দেখা যায়। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভির পদত্যাগও চান। 

জানা গেছে, দুপুর সোয়া একটায়  বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বেশ কয়েকটি ককটেলও বিস্ফোরিত হয়।

এদিকে সকাল থেকে কার্যালয়ের ভেতরে কাউকে ঢুকতে দিচ্ছেন না সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সদস্যরা। এমনকি বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলনকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এ ছাড়াও ছাত্রদলের পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ইউনিটের এক নেতা কার্যালয়ে ঢুকতে চাইলে তাকেও মারা হয়।


এদিকে, কাউন্সিলের তারিখ ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে ছাত্রদলের একাংশ আজ সকালে মিছিল করেছেন।

অন্যদিকে, বিদ্যুৎহীন অবস্থায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের ভেতরে অবস্থান করছেন দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী অ্যানি, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী ছাত্রদলের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের।

প্রসঙ্গত, রোববার (২৩ জুন) এক সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদলের কাউন্সিলের ঘোষণা দেয় বিএনপি। এতে বলা হয়, আগামী ১৫ জুলাই ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের কাউন্সিল। ওই দিন সকাল নয়টা থেকে বেলা তিনটা পর্যন্ত কেবল সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে ভোট হবে। তার একদিন আগে ২২ জুন ছাত্রদলের ১২ নেতাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তাদের বহিষ্কারের কথা জানানো হয়।

গত ৩ জুন ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি ভেঙে দেওয়ার পাশাপাশি কাউন্সিলের মাধ্যমে সংগঠনটির নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের ঘোষণা দেয় বিএনপি। সেসময় থেকেই বয়সসীমা না রেখে ধারাবাহিক কমিটি গঠনের দাবিতে বিক্ষোভ করে আসছেন বিলুপ্ত কমিটির নেতারা, তাদের দাবি, ২০০০ সালের পরে এসএসসি পাস করেছে যারা, তারা সবাই কমিটিতে থাকতে পারবেন।