• রবিবার, অক্টোবর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০০ রাত

ড. কামাল: বঙ্গবন্ধুর ছবি ও নাম অপব্যবহার করে লুটপাট চলছে

  • প্রকাশিত ০৮:৪৬ রাত আগস্ট ২৪, ২০১৯
ড, কামাল হোসেন
ড. কামাল হোসেন। ফাইল ছবি

"বাংলাদেশে এমন স্বৈরাচারী শাসন থাকবে বঙ্গবন্ধুও কোনোদিন কল্পনা করতে পারেননি"

গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে বলেছেন, যারা নিজের ভাগ্য তৈরি করতে জনগণকে দেশের মালিকানা ও ভোটের অধিকার থেকে বঞ্চিত করে বঙ্গবন্ধুর ছবি ও নামের অপব্যবহার করছেন তারাই সবচেয়ে বড় অপরাধী।

তিনি বলেন, "তারা বঙ্গবন্ধুর নাম ও ছবি ব্যবহার করছে, কিন্তু তার আদর্শের বিপরীতে কাজ করছে। বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করে তার আদর্শ ও স্বপ্নের বিপরীতে কাজ করা সবচেয়ে বেদনাদায়ক অপরাধ বলে আমি মনে করি।"

জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয় শোক দিবস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে গণফোরাম আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, "জনগণের স্বার্থ রক্ষায় তারা (আওয়ামী লীগ) তাদের ক্ষমতা ব্যবহারের পরিবর্তে তার (বঙ্গবন্ধু) নাম ব্যবহার করে নিজেদের ভাগ্য তৈরি করছে। এটা সম্পূর্ণ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের বিপরীত। তাই আমাদের বঙ্গবন্ধুর সত্যিকারের স্বপ্ন মানুষকে জানাতে হবে। তাহলে তারা এসব অপব্যবহার প্রতিরোধ করবে।"

বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহযোগী ড. কামাল বলেন, দেশে প্রকৃত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা ও জনগণকে ক্ষমতাবান করতে জাতির পিতা জীবনভর সংগ্রাম করে গেছেন।

"কেউ যদি মনে করেন যে দেশের ক্ষমতা এবং মালিকানা কোনো ব্যক্তি এবং একটি দলের অন্তর্ভুক্ত তাহলে এটি বঙ্গবন্ধুকে অসম্মান করা এবং তার নির্দেশকে অমান্য করার সমান হবে," যোগ করেন তিনি।

"বাংলাদেশে এমন স্বৈরাচারী শাসন থাকবে বঙ্গবন্ধুও কোনোদিন কল্পনা করতে পারেননি" উল্লেখ করে ড. কামাল বলেন, "যারা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন থেকে বিচ্যুত, যারা দেশের মালিকানা থেকে মানুষকে বঞ্চিত করতে চান তারা ব্যর্থ হতে বাধ্য।"

আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক আবু সাঈদ, সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া, প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খান (এমপি), মোহসিন রশিদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিন আহমেদ আফসারি, মোস্তাক আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।