• শুক্রবার, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৫১ সন্ধ্যা

সরকারের কাছে ১০ কাঠা জমি চাইলেন সংসদকে 'অবৈধ' বলা রুমিন ফারহানা

  • প্রকাশিত ০৫:৩৪ সন্ধ্যা আগস্ট ২৫, ২০১৯
ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা
বিএনপির সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা। ফাইল ছবি।

সরকার প্লট দিলে ‘চিরকৃতজ্ঞ’ থাকবেন বলেও উল্লেখ করেছেন বিএনপি থেকে মনোনীত সংরক্ষিত নারী আসনের এই সংসদ সদস্য

সরকারের কাছে ১০ কাঠা জমি চেয়ে আবেদন করেছেন বিএনপির সাংসদ অ্যাডভোকেট রুমিন ফারহানা। গত ৩ আগস্ট গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে পাঠানো এক চিঠিতে ১০ কাঠার একটি প্লট চেয়ে আবেদন করেন তিনি।

সরকারের কাছে জমি চেয়ে বিএনপির এই সংসদ সদস্যের পাঠানো চিঠিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

একাদশ জাতীয় সংসদকে "অবৈধ" আখ্যায়িত করে সংরক্ষিত আসনের এমপি হিসেবে সংসদে যোগ দিয়ে আলোচিত হয়েছিলেন রুমিন ফারহানা।

সংসদে যোগ দিয়ে প্রথম দিনের বক্তৃতাতেও এ সংসদ ও সরকারকে "অবৈধ" আখ্যায়িত করেন বিএনপির এই আন্তর্জাতিক বিষয়ক সহ-সম্পাদক।

সংসদে যোগ দেওয়ার দুই মাসের মাথায় নিজেই এমপি হিসেবে প্লটের আবেদন করায় তাকে নিয়ে এখন নতুন করে আলোচনা হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া সরকারের কাছে ১০ কাঠা প্লট চেয়ে রুমিন ফারহানার আবেদনপত্র। ছবি: সংগৃহীত


প্লটের জন্য সরকারের গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় বরাবর করা আবেদনে সংরক্ষিত নারী আসনের এই সংসদ সদস্য বলেন, "ঢাকার পূর্বাচলে আমার ১০ কাঠার একটি প্লট প্রয়োজন। ঢাকায় আমার কোনো জমি বা ফ্ল্যাট নেই। ওকালতির বাইরে আমার কোনো পেশা বা ব্যবসা নেই।"

চিঠিতে তিনি আরও উল্লেখ করেন, "১০ কাঠা জমি বরাদ্দ পেলে সরকারের প্রতি আমি চিরকৃতজ্ঞ থাকবো।"

তবে, এবিষয়ে রুমিন ফারহানার মতামত জানার জন্য মুঠোফোনে বারবার চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, গত ৯ জুন সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেন রুমিন ফারহানা। ওইদিন শপথ নিয়েই তিনি সরকারকে 'অবৈধ' হিসেবে আখ্যায়িত করেন। সংসদে যোগ দেওয়ার পর থেকেই সরকারের একজন কড়া সমালোচক হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠেন তিনি। সরকারের এমন কড়া সমালোচক হয়েও তিনি প্লটের জন্য আবেদন করায় দেশের রাজনৈতিক মহলে আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।