• সোমবার, জানুয়ারী ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৫ রাত

কাদের: মুক্তিযুদ্ধ ও গণতন্ত্রকে বাঁচাতে হলে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে

  • প্রকাশিত ০২:২৭ দুপুর ডিসেম্বর ৫, ২০১৯
ওবায়দুল কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি ফোকাস বাংলা

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হলে দলের ত্যাগী কর্মীদের বাঁচাতে হবে। বাংলাদেশের উন্নয়নকে বাঁচাতে হলে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রাখতে হবে

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ ও গণতন্ত্রকে বাঁচাতে হলে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে। আর আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হলে দলের ত্যাগী কর্মীদের বাঁচাতে হবে। বাংলাদেশের উন্নয়নকে বাঁচাতে হলে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রাখতে হবে।

বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে সিলেট সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লুৎফুর রহমান।

সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আওয়ামী লীগ ঐতিহ্যের সঙ্গে প্রযুক্তির সমন্বয় ঘটিয়ে, আদর্শের সঙ্গে বাস্তবতার সমন্বয় ঘটিয়ে দেশ পরিচালনা করছে। উন্নয়নের মডেলের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে আওয়ামী লীগকে কাউন্সিলের মাধ্যমে নতুনভাবে সাজানো হচ্ছে।

সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে অংশগ্রহণ করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল-আলম হানিফ। বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশ নেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুল ইসলাম নাহিদ, কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান ও বাহাউদ্দিন নাসিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ও অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, কেন্দ্রীয় সদস্য অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য ড. একে আব্দুল মোমেন, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী, সিলেট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইমরান আহমদ। 

স্বাগত বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান।

এই সম্মেলনের মাধ্যমে ঘোষণা করা হবে জেলা ও মহানগরের শীর্ষ নেতৃত্বের নাম। এদিন দুপুর সাড়ে ১২টায় জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন এবং জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করেন ওবায়দুল কাদের।

উল্লেখ্য, ১৪ বছর পর অনুষ্ঠিত হচ্ছে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন।