• মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৭ রাত

ফখরুল: খালেদার প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে পরিবার

  • প্রকাশিত ০৪:৫৫ বিকেল ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সোমবার বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানান। ছবি : রাজীব ধর/ ঢাকা ট্রিবিউন
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি- রাজীব ধর/ঢাকা ট্রিবিউন

ফখরুল বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খুবই অসুস্থ এবং যেকোনো সময় খারাপ কিছু ঘটতে পারে

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দলের চেয়ারপারসনের প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে খালেদা জিয়া নিজে ও তার পরিবার সিদ্ধান্ত নেবে।

খালেদার প্যারোলে মুক্তি পাওয়ার কোনো সম্ভাবনা আছে কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, "এটা সম্পূর্ণ ম্যাডাম (খালেদা) ও তার পরিবারের ব্যাপার, তারা এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।"

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শেরে বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ফখরুল এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি অভিযোগ করেন, তাদের দলের প্রধানকে "মিথ্যা" মামলায় দোষী সাব্যস্ত করে "বেআইনিভাবে" কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। সংবিধান অনুযায়ী তিনি জামিন পাওয়ার যোগ্য। কিন্তু রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে সরকার তাকে জামিন দিচ্ছে না।

বিএনপির এই নেতা বলেন, তাদের দল দুবছর ধরে খালেদার মুক্তি ও গণতন্ত্রকে "পুনরুদ্ধার" করার জন্য আন্দোলন করছে। তারা বিশ্বাস করেন যে জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষা অনুযায়ী সরকার খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে বাধ্য হবে। 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে প্যারোল ইস্যু নিয়ে কথা বলেছেন কিনা জানতে চাইলে ফখরুল এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকে প্রশ্ন করার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, "আমরা এখনও আমাদের দল থেকে প্যারোল নিয়ে কথা বলিনি।"

ফখরুল বলেন, গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো বিএনপি চেয়ারপারসন খুবই অসুস্থ এবং যেকোনো সময় খারাপ কিছু ঘটতে পারে। "এ কারণেই আমরা বলছি সরকার পরিকল্পিতভাবে ধীরে ধীরে তাকে কারাগারে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে।"

তিনি আরও বলেন, দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে চাইলে সরকারের উচিত অবিলম্বে খালেদা জিয়া মুক্তি দেওয়া।