• রবিবার, এপ্রিল ০৫, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:১০ রাত

‘খালেদার জামিন খারিজ সরকারের ‘হিংসাশ্রয়ী’ নীতির প্রকাশ’

  • প্রকাশিত ১০:৫৫ রাত ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০
রুহুল কবির রিজভী
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ফাইল ছবি

রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন হাইকোর্টে খারিজ করে দেওয়ার মাধ্যমে সরকারের ‘হিংসাশ্রয়ী’ নীতির প্রকাশ হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।

বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।  

এ সময় জামিন খারিজের প্রতিবাদে শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীসহ সারা দেশে বিক্ষোভ এবং রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশের ঘোষণা দেন তিনি। 

এর আগে বৃহস্পতিবার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি একেএম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার করা জামিন আবেদন খারিজ করে দেয়।

আদালত তার পর্যবেক্ষণে বলেন, খালেদা জিয়াকে বোর্ডের পক্ষে চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব। তিনি চাইলে মেডিকেল বোর্ড যেকোনো সময় চিকিৎসা শুরু করবে। প্রয়োজনে সাত সদস্যের বোর্ডের সংখ্যাও বাড়ানো যেতে পারে। 

এর আগে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) কর্তৃপক্ষের দেওয়া মেডিকেল প্রতিবেদন হাইকোর্ট বেঞ্চের সামনে উপস্থাপন করেন।

আদালতের রায়ের প্রতিবাদ করে রিজভী বলেন, “হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ হওয়ার মধ্য দিয়ে সরকারের হিংসাশ্রয়ী নীতির প্রকাশ ঘটলো। সরকার মুক্তিপণ আদায়কারীদের মতো অবৈধ ক্ষমতা ধরে রাখার মুক্তিপণ আদায়ের জন্য খালেদা জিয়ার আইনি অধিকার লঙ্ঘন করে তাকে অন্যায়ভাবে কারারুদ্ধ করে রেখেছে।”

তিনি অভিযোগ করেন, তাদের চেয়ারপার্সনের জামিন আবেদন আদালত সরকারের “নির্দেশে” খারিজ করে দিয়েছে। 

বিএনপির এ নেতা অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে সরকারের কাছে দাবিও জানান।