Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

একরাম হত্যা অত্যন্ত অন্যায় হয়েছে: মির্জা ফখরুল

আপডেট : ০৩ জুন ২০১৮, ০৩:৪৫ এএম

টেকনাফের কমিশনার একরামুল হককে হত্যা করা অত্যন্ত অন্যায় হয়েছে বলে মন্তব্য করছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেনআমরা আগেই বলেছিএ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে ভিন্ন উদ্দেশ্য ও ভিন্ন কারণে। আমরা আশঙ্কা করেছিলামএটাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হবে কিনা। কক্সবাজারের কমিশনার একরামের এলাকাবাসী ও তার মেয়র পর্যন্ত বলেছেনতিনি অত্যন্ত ভালো মানুষ ছিলেন। তাকে হত্যা করা ছিল অত্যন্ত অন্যায়।

শনিবার (২ জুন) রাজধানীর একটি কনভেনশন সেন্টারে ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। রংপুর মেডিক্যাল কলেজ জাতীয়তাবাদী সাবেক ছাত্রকল্যাণ পরিষদ এ ইফতারের আয়োজন করে।

মির্জা ফখরুল বলেনএকরাম হত্যায় যে অডিও প্রকাশ পেয়েছে সেটি যদি সত্য হয়ে থাকেতাহলে নিঃসন্দেহে প্রমাণিত হচ্ছে এ অভিযান দিয়ে সরকার জনগণের দৃষ্টিকে ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করতে চায়। তাদের যে দুঃশাসনঅন্যায়অত্যাচার ও হত্যাকল্পনা করা যায়একটা স্বাধীন দেশে মধ্যে পাখির মতো মানুষকে গুলি করে মারা হচ্ছে। তার কোনও বিচার হবে নাতাই এগুলো প্রতিরোধ করে রুখে দাঁড়াতে হবে। শুধু শুনলে বা বললেই হবে নাপথে নামতে হবেপথেই এদের পরাজিত করতে হবে।

কেউ কোথাও বিচার পান না দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেনআমি অনেক ব্যবসায়ীকে জানিযারা শুধুমাত্র ভিন্নমত বা ভিন্নমতাবলম্বী বলে তাদের কারখানায় গ্যাস ও বিদ্যুতের সংযোগ পান না। মাসের পর মাসবছরের পর বছর তাদের কারখানা পড়ে আছে। অনেক বাড়ির কাজ শেষ কিন্তু বিদ্যুৎ সংযোগের কারণে তারা ভাড়া দিতে পারছেন না। এটা হচ্ছে বর্তমান দেশের খণ্ডিত চিত্র। 

তিনি আরও বলেনখালেদা জিয়াকে হাইকোর্ট জামিন দিয়েছেন অথচ কৌশল অবলম্বন করে সেটি স্থগিত করিয়ে মাসের পর মাস খালেদা জিয়াকে কারারুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। দেশের এ অবস্থা চলতে দেওয়া যায় না। এটা শুধু বিএনপি বা খালেদা জিয়ার একার সমস্যা নয়। এ সমস্যা আজ সমগ্র জাতির। তাই আজ সমগ্র জাতিকে রুখে দাঁড়াতে হবে। 

ঐক্য সৃষ্টি করে আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এ সরকারকে সরাতে হবে বলে মন্তব্য করে তিনি বলেননিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচনের মাধ্যমে আমরা জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে পারবো।

About

Popular Links