Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ফরাসি দূতাবাস বন্ধে হেফাজতের ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম

সংগঠনটির সেক্রেটারি জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, 'ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রনকে অবশ্যই ক্ষমা চাইতে হবে। সরকার আমাদের দাবি পূরণ না করা পর্যন্ত আমরা ঘরে ফিরে যাবো না'

আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০২০, ০৩:০৬ পিএম

ঢাকায় ফ্রান্সের দূতাবাস বন্ধে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। সোমবার (২ অক্টোবর) সংগঠনটির সেক্রেটারি জুনায়েদ বাবুবনগরি সরকার ফরাসি দূতাবাস অভিমুখে তাদের পদযাত্রা স্থগিত করে সরকারকে এই আল্টিমেটাম দেন।

এর আগে সোমবার সকাল থেকেই রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মসজিদে ফরাসি দূতাবাস অভিযমুখে পদযাত্রার জন্য জড়ো হতে থাকেন হেফাজতের কর্মীরা। পরে দুপুর একটার দিকে নগরীর বিজয়নগর মোড়ে আসলে হেফাজতের পদযাত্রায় বাধা দেয় পুলিশ।

এরপর নিজের গাড়ি থেকে দেয়া বক্তব্যে জুনায়েদ বাবুবনগরী বলেন, “আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সাংবাদিক ও এখানে আগত মুসল্লিদের আবেগের প্রতি সম্মান জানিয়ে আমরা এখানেই আমাদের কর্মসূচি বন্ধ ঘোষণা করছি।

“তবে আমাদের পরবর্তী কর্মসূচি এখানে থেমে থাকবে না। আমাদের দাবি না মানা হলে আমরা ফরাসি দূতাবাসে যাবো এবং সেটি ধ্বংস করবো,” যোগ করেন তিনি।

বাবুনগরী আরো বলেন, “ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রনকে অবশ্যই ক্ষমা চাইতে হবে। সরকার আমাদের দাবি পূরণ না করা পর্যন্ত আমরা ঘরে ফিরে যাবো না।”

তিনি আরো বলেন, “আমরা সরকারের বন্ধু। আমরা চাই এই সরকার আরও আগামী ১০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ক্ষমতায় থাকুক। কিন্তু ইসলামের মৌলিক নির্দেশনাগুলো মানতে হবে। হেফাজতের দাবিগুলো মানতে হবে।”

“ভাস্কর্য্যের নামে যেসব মুর্তি তৈরি করা হয়েছে তা সরিয়ে ফেলতে হবে। কাদিয়ানি সম্প্রদায়কে অমুসলিম হিসেবে ঘোষণা করতে হবে,” যোগ করেন তিনি।

পরে সংগঠনটির সর্বোচ্চ নেতা নূর হোসেন কাসেমি মোনাজাতের মাধ্যমে সোমবারের কর্মসূচি সমাপ্ত করেন। এ সময় সংগঠনের নেতাদের সাথে বসে পরবর্তী কর্মসূচী নির্ধারণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, হেফাজতের বিক্ষোভ সমাবেশকে কেন্দ্র করে সোমবার সকাল থেকেই রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ থেকে নাইটিঙ্গেল মোড় পর্যন্ত যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। হেফাজত কর্মীদের জমায়েতে নেতা-কর্মীদের জমায়েতে পল্টন, গুলিস্তান, প্রেসক্লাব এলাকায় সকাল থেকে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে।

About

Popular Links