Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মির্জা ফখরুল: ঢাকা-চট্টগ্রামে বিস্ফোরণের জন্য সরকার দায়ী

সাম্প্রদায়িক সমস্যা এবং বিভেদ সরকার সৃষ্টি করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা মনে করি তারা অত্যন্ত অসৎ উদ্দেশ্যে এটা করছে’

আপডেট : ০৫ মার্চ ২০২৩, ০৭:৪৫ পিএম

ঢাকা ও চট্টগ্রামের বিস্ফোরণের ঘটনার জন্য সরকারের ব্যর্থতাকে দায়ী করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, “সরকার যখন ব্যর্থ হয়, তার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে ব্যর্থ হয়। যারা এ বিষয়গুলোর দায়িত্বে যারা রয়েছেন তারা দেখবেন সবকিছু সঠিকভাবে আছে কি-না। অর্থাৎ সেখানে যেন বিস্ফোরণ না ঘটে, কোনো দুর্ঘটনা না ঘটে। সরকারি সংস্থাগুলো সেই ব্যবস্থা নিতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। সরকারের ব্যর্থতার কারণে এই ধরনের বিস্ফারণের ঘটনা ঘটছে।”

রবিবার (৫ মার্চ) দুপুরে গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের সঙ্গে বৈঠকের পর বিএনপি মহাসচিব সাংবাদিকদের সামনে এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি পঞ্চগড়ে সাম্প্রদায়িক সংকটের জন্যও সরকারকে দোষারোপ করেন।

চট্টগ্রাম ও ঢাকায় বিস্ফারণে নিহতদের প্রতি শোক প্রকাশ করে তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন বিএনপি মহাসচিব।

মির্জা ফখরুল বলেন, “পঞ্চগড়ে একটা সাম্প্রদায়িক ঘটনা ঘটানো হয়েছে। দুইজন নিহত হয়েছেন। দোকানপাটসহ বাড়িঘর লুটপাট, অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। আমাদের প্রশ্ন, এই ধরনের একটা বিতর্কিত বিষয় নিয়ে সরকার চুপ করে থাকলো কেন? সেখানে সমাবেশ করার অনুমতিই বা দেওয়া হলো কেন? বা পরবর্তীকালে যখন আক্রমণ হয়েছে তখন পুলিশ দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে সেটা দেখলো কেন? সেটাকে তারা প্রতিহত করতে সক্ষম হলো না কেন?”

সাম্প্রদায়িক সমস্যা এবং বিভেদ সরকার সৃষ্টি করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “আমরা মনে করি তারা অত্যন্ত অসৎ উদ্দেশ্যে এটা করছে।”

গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের সঙ্গে বিএনপির লিয়াজোঁ কমিটির বৈঠক হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের সমন্বয়ক প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের মহাসচিব হারুন আল রশীদ খান, সোশাল ডেমোক্রেটিক পার্টির আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ, সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম ও বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক হারুন চৌধুরী, নুরে আলম ও শাহজালাল মোল্লা, বিএনপির লিয়াজোঁ কমিটির দলের ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু ও যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

About

Popular Links