Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মির্জা ফখরুলের গলায় টাকার মালা

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের অত্যাচারে মানুষ অত্যাচারিত-নির্যাতিত-জর্জরিত হয়ে গেছে। লুট করে শেষ করে দিয়েছে। শেয়ার বাজার লুট করেছে, ব্যাংক থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। প্রত্যেকটি ব্যাংক এখন দেউলিয়া হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে।’

আপডেট : ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৯:০১ পিএম

বিএনপি মহাসচিব ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে টাকার মালা দিয়ে বরণ করেছেন স্থানীয় সমর্থকরা। 

গতকাল রোববার বিকেলে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নে শিবগঞ্জ সিনিয়র দাখিল মাদ্রাসা মাঠে আয়োজিত জনসভায় ওই মালা পরানো হয়।  

জানা গেছে মির্জা ফখরুলকে মোট তিনটি মালা পরানো হয়, মালাগুলোতে মোট সাড়ে ৩৫ হাজার টাকা ছিল। একটি মালা দিয়েছে স্থানীয় মহিলা দলের পক্ষ থেকে। অপর দুটি মালা দিয়েছেন এলাকাবাসী।

জনসভায় মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষের শেষ আশা ভরসার স্থল সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনী মাঠে নামলে আমরা আশ্বস্ত হই, আস্থা পাই। আমরা আশা করব জনগণের এই আস্থার মর্যাদা সেনাবাহিনী রক্ষা করবে। জনগণ যা চায় তাই করবে। দেশে যেন অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন হয় তার ব্যবস্থা করবে। বাংলাদেশে এখন সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করা; ইনসাফ প্রতিষ্ঠা করা। কোথাও কোনো ন্যায় বিচার ও ইনসাফ নাই।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের অত্যাচারে মানুষ অত্যাচারিত-নির্যাতিত-জর্জরিত হয়ে গেছে। লুট করে শেষ করে দিয়েছে। শেয়ার বাজার লুট করেছে, ব্যাংক থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। প্রত্যেকটি ব্যাংক এখন দেউলিয়া হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে।’

‘আজকে আমরা খুব পরিষ্কার ভাষায় বলতে চাই এই দানবীয়-ফ্যাসিস্ট সরকারকে আর টিকতে দেওয়া যায় না। ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের মাধ্যমে তারদেরকে পরাজিত করতে হবে।’

সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন—দলের জেলা সভাপতি তৈমুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পয়গাম আলী, আব্দুল হান্নান হান্নু, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম মজিদুল ইসলাম, সদর থানা যুবদল সাংগঠনিক সম্পদাক রেজাউল করিম লিটন, জেলা ছাত্রদল সভাপতি মো. কায়েস, জামালপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।

About

Popular Links