Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ফখরুল: বিদেশিরা আলোচনার জন্য ডাকে, আমরাই যাই না

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘মানুষকে বারবার বোকা বানিয়ে ক্ষমতায় থাকা সম্ভব নয়। আপনারা মানুষকে একবার বা দুইবার ধোঁকা দিতে পারেন, এটি বারবার ঘটবে না’

আপডেট : ১৮ জুন ২০২৩, ০৮:১১ পিএম

বিএনপির নেতারা বিদেশিদের কাছে যান না, বিদেশিরা মাঝেমধ্যে দেশের পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলার জন্য আমন্ত্রণ জানান বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, “তারা (আওয়ামী লীগ) বলে আমরা বিদেশিদের কাছে যাই। আমরা বিদেশিদের কাছে যাই না, বরং বিদেশিরা আমাদের মাঝে মাঝে ডাকে। তারা জানতে চায় দেশে কী হচ্ছে, আমরা কী করছি। যে দেশগুলো গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে তাদের জন্য এই বিষয়গুলো জানা স্বাভাবিক।”

রবিবার (১৮ জুন) একটি বইয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় ফখরুল এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, “মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ঘোষিত নীতি হচ্ছে, পৃথিবীতে তিনি গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে চান। যেখানে গণতন্ত্র নেই, সেখানে তারা সে কথা বলে দেন, তাদের (মার্কিন) গণতন্ত্র সম্মেলনে ডাকেন না। আবার তাদের (যেসব দেশে গণতন্ত্র নেই) স্যাংশন না কি সব দেন।”

বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরে ফখরুল বলেন, “সরকারি দল গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না, আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রেখে দেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করা যাবে না। তারা (আওয়ামী লীগ নেতা) বারবার ভালো নির্বাচন করার কথা বলছে। কিন্তু জনগণ কীভাবে বিশ্বাস করবে, কারণ তারা অতীতে কখনও ভালো নির্বাচন করতে পারেনি।”

বিএনপি নেতা বলেন, “বারবার মানুষকে বোকা বানিয়ে ক্ষমতায় থাকা সম্ভব নয়। আপনারা মানুষকে একবার বা দুবার ধোঁকা দিতে পারেন, এটি বারবার ঘটবে না। এবার মানুষ জেগে ওঠেছে।”

ক্ষমতাসীন দল গত ১৪ বছর ধরে বাংলাদেশের জনগণের ওপর দমন-পীড়ন চালাচ্ছে অভিযোগ করে ফখরুল বলেন, “আমি আজ (রবিবার) পত্রিকায় পড়েছি, একজনকে তুলে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে ডিবি (পুলিশের গোয়েন্দা শাখা)। এছাড়াও সাংবাদিক গোলাম রব্বানী নাদিমকে জামালপুরে আওয়ামী লীগের নেতা পিটিয়ে হত্যা করেছে।”

দুই দিন আগে চট্টগ্রাম নগরীতে বিএনপির যুব সমাবেশে যোগ দিয়ে একটি অটোরিকশায় করে বাড়ি ফেরার সময় মিরসরাইয়ে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ ক্যাডাররা এক নারী ছাত্রদল নেত্রীকে তুলে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন এই বিএনপি নেতা। তিনি বলেন, “ক্ষমতাসীন দলের লোকজন তাকে একটি বাড়িতে নিয়ে যায় এবং সেখানে কয়েক ঘণ্টা ধরে নির্যাতন ও লাঞ্ছিত করে।”

তিনি আরও বলেন, “মেয়েটির মা তাকে উদ্ধার করতে গেলে নির্যাতনকারীরা তাকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে এবং পরদিন তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়। এটিই হচ্ছে বিচার ব্যবস্থা, যেখানে একজন নির্যাতিত ও বেআইনিভাবে গ্রেপ্তার করা একটা মেয়েকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আপনারা কীভাবে এই দেশে গণতন্ত্র এবং আপনার অধিকারের কথা বলবেন?”

পরে বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী প্রকাশনা সংস্থা আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান, চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে নিয়ে বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন ফখরুল।

About

Popular Links