Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ফখরুল: মানুষের মধ্যে ঈদের আনন্দ নেই

মঙ্গলবার (৩ মে) সকালে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত শেষে তিনি এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসিচব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

আপডেট : ০৩ মে ২০২২, ০৩:৩৬ পিএম

বিএনপি মহাসিচব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, “আমরা সব সময় প্রত্যাশা করি যে, দেশের সব মানুষ আনন্দের সঙ্গে ঈদ-উল-ফিতর পালন করবে। কিন্তু দুর্ভাগ্যের ব্যাপার, যেভাবে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে, যেভাবে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা দিন দিন খারাপ হচ্ছে এবং একইসঙ্গে সাধারণ মানুষ কর্মচ্যুত হচ্ছেন, সেখানে আনন্দের সঙ্গে ঈদ পালন করা সম্ভব হচ্ছে না। মানুষের মধ্যে আনন্দ নেই।”

মঙ্গলবার (৩ মে) সকালে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, “আমরা আল্লাহ’র কাছে প্রার্থনা করি, তিনি যেন এই অবস্থার অবসান ঘটান। আমরা যেন এই স্বৈরশাসনের অবসান ঘটিয়ে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে পারি, যেন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে পারি এবং আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারি।”

ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজি সেলিমের বিদেশে গমনের প্রসঙ্গ টেনে ফখরুল বলেন, “সাজাপ্রাপ্ত হাজি সেলিম সুযোগ পেলেও খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক কারণেই সরকার বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দিচ্ছে না। এই ঘটনা থেকে প্রমাণিত হয় বেগম খালেদা জিয়াকে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে আটক করে রাখা হয়েছে। শুধু আমরা নই বিদেশেও বলা হচ্ছে যে, তার এই সাজা দেওয়া হয়েছে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক কারণে।”

বিএনপি মহাসচিব বলেন, “আপনারা দেখেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মানবাধিকার রিপোর্টে বেগম খালেদা জিয়ার মামলাকে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক এবং সাজাটাও প্রতিহিংসার জন্য দেওয়া হয়েছিল বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এই সরকার ক্ষমতা আসার পর থেকেই যারা এ দেশে গণতন্ত্রের জন্য লড়াই-সংগ্রাম করেছেন, যারা স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের জন্য লড়াই করেন তাদের বিরুদ্ধে তারা এ ধরনের দমনমূলক ব্যবস্থা নিচ্ছে। বিশেষ করে দেশনেত্রী খালেদা জিয়া, যিনি স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের প্রতীক, গণতন্ত্রের প্রতীক তাকে অন্যায়ভাবে আটক করে রেখে ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করতে চায়।”

About

Popular Links