Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

তথ্যমন্ত্রী: সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেই বিএনপিকে সমাবেশ করতে হবে

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি যদি নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে তাদের অবস্থান ব্যক্ত করে, সেক্ষেত্রে সরকার সরকারের অবস্থান ব্যক্ত করবে। আমরা আগেই বলেছি, আওয়ামী লীগ ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে সতর্ক পাহারায় থাকবে

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০২:৫৭ পিএম

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেই বিএনপিকে বিভাগীয় গণসমাবেশ করতে হবে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেছেন, “সারাদেশে তারা (বিএনপি) খোলা মাঠে সমাবেশ করেছে। ঢাকায় নয়াপল্টনে যেখানে ৩০ থেকে বড়জোর ৫০ হাজার মানুষ ধরবে, সেখানে ৮-১০ লাখ মানুষের সমাবেশ কোনোভাবেই সম্ভব না। সরকার সৎ উদ্দেশ্যেই তাদের সোহরাওয়ার্দী উদ্যান বরাদ্দ দেওয়ার কথা বলেছে। তারা যাতে নির্বিঘ্নে সমাবেশ করতে পারে সে জন্য ৮ ডিসেম্বর ছাত্রলীগের সম্মেলন এগিয়ে ৬ তারিখ করা হয়েছে। কিন্তু তাদের উদ্দেশ্য তো ভিন্ন- গণ্ডগোল লাগানো। সরকার সারাদেশ থেকে অগ্নিসন্ত্রাসীদের জড়ো করে ঢাকায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অনুমতি দিতে পারে না।” 

বুধবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, “জনগণের যানমালের নিরাপত্তা বিধান, শান্তি, স্থিতি বজায় রাখার স্বার্থে সরকারকে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হয়। এ ক্ষেত্রেও তারা যদি চূড়ান্তভাবে প্রত্যাখ্যান করে নয়াপল্টনে সমাবেশ করার জন্য তাদের অবস্থান ব্যক্ত করে, সে ক্ষেত্রে সরকার সরকারের অবস্থান ব্যক্ত করবে। আমরা আগেই বলেছি, আওয়ামী লীগ ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে সতর্ক পাহারায় থাকবে। নেতা-কর্মীদের আমরা অনুরোধ জানিয়েছি সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য। দেশের যাতে কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে। প্রয়োজন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের আওয়ামী লীগ জনগণকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিহত করবে।”

হাছান মাহমুদ বলেন, “রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যে সারাদেশে দ্রব্যমূল্য লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে। আমাদের দেশেও যে বাড়েনি তা নয়। আমাদের দেশেও সেটির প্রভাব পড়েছে। কিন্তু অন্যান্য দেশের তুলনায় বৃদ্ধি অনেক ক্ষেত্রে কম। এই প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যেও বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। করোনা মহামারির মধ্যে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ভারতকে ছাড়িয়েছে। সত্যিকার অর্থে বাংলাদেশ আজ সমৃদ্ধির সোপানে, যে যত কথাই বলুক। এটিই বাস্তবতা।”

আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন পরিকল্পনা তুলে ধরে তিনি বলেন, “১০০ বছর পর এ দেশের জনসংখ্যা কত হবে, জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাতের কারণে আমাদের উপকূলের পরিস্থিতি কী দাঁড়াবে এসব বিষয় মাথায় রেখে আমরা ডেলটা প্ল্যান ২১০০ করেছি।”

সংবাদমাধ্যমের উদ্দেশে তথ্যমন্ত্রী বলেন, “আমরা সব সময় অতি মাত্রায় খারাপ সংবাদ নিয়ে ব্যস্ত থাকি। রাজনৈতিক সংবাদ নিয়ে অতি মাত্রায় ব্যস্ত থাকি। কিন্তু দেশ যে সমৃদ্ধির দিকে যাচ্ছে সে জিনিসটা মানুষকে জানানো প্রয়োজন। সরকার যে এই পরিকল্পনাগুলো করেছে, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে এবং যাওয়ার মহাপরিকল্পনা করেছে সেটিও মানুষের জানা প্রয়োজন।”

About

Popular Links