Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘সিইসিকে ধন্যবাদ, আলোচনায় যাবে না বিএনপি’

ফখরুল বলেন, যেহেতু মূল রাজনৈতিক সমস্যার সমাধানের কোনো সম্ভাবনা নির্বাচন কমিশন প্রস্তাবিত আলোচনা ও মতবিনিময় সম্ভব নয়। সেই কারণে বিএনপি এই প্রস্তাব গ্রহণ করতে পারছে না

আপডেট : ২৯ মার্চ ২০২৩, ০৪:৩২ পিএম

অনানুষ্ঠানিক আলোচনার জন্য আমন্ত্রণ জানানোয় প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়ালকে ধন্যবাদ জানিয়েছে বিএনপি।

তবে বিএনপি বলছে, বর্তমানের মূল রাজনৈতিক সংকট নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে কোনো আলোচনা অথবা সংলাপ ফলপ্রসু হবে না এবং তা হবে অর্থহীন। ২০১৪ এবং ২০১৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রমাণিত হয়েছে যে নির্বাচন কমিশন স্বাধীন নয় এবং ইচ্ছা থাকলেও নির্বাচনকে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনের ক্ষমতা নেই। এই কারণে বিএনপি ইসির প্রস্তাব গ্রহণ করতে পারছে না।”

বুধবার (২৯ মার্চ) রাজধানীর গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানানো হয়।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, “আমাদের দলের স্থায়ী কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে যে, যেহেতু মূল রাজনৈতিক সমস্যার সমাধানের কোনো সম্ভাবনা নির্বাচন কমিশন প্রস্তাবিত আলোচনা ও মতবিনিময় সম্ভব নয়। সেই কারণে বিএনপি এই প্রস্তাব গ্রহণ করতে পারছে না।”

নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে যে আহ্বান জানানো হয়েছে, তার পেছনে সরকারের অবদান আছে- এমনটি বলে আসছিলেন বিএনপি নেতারা। পরে সিইসি বিএনপির এমন মন্তব্যের বিষয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, এই অনানুষ্ঠানিক আলোচনার আহ্বানে সরকারের কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। এটি কোনো কূটকৌশলও নয়।

আজ আবারও সিইসির আলোচনার উদ্যোগ নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, “আমরা যখন বলেছি কূটকৌশল। উনি গতকাল আপনাদের কাছে উত্তর দিয়ে বলেছেন, উনি এটা আন্তরিকভাবে করছেন। এটা বিশ্বাস করা আমাদের জন্য খুব কঠিন।”

নির্বাচন কমিশনের আলোচনায় না যাওয়ার সিদ্ধান্ত চিঠি দিয়ে জানানোর প্রয়োজন বোধ করছে না বিএনপি। ফখরুল বলেন, ‘‘আমি এই প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমেই উনাকে (সিইসি) জানাচ্ছি। এজন্য এই প্রেস কনফারেন্স করা। আমি আশা করি আমাদের মতামতটা গ্রহণ করবেন। আমরা এই প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে আমাদের উত্তর জাতিকে জনগণকে জানিয়ে দিয়েছি। এটা নতুন করে আর কিছু নাই “

এক প্রশ্নে ফখরুল বলেন, “আলোচনা করতে হলে সরকারকে করতে হবে। সংবিধান পরিবর্তন করেই ওই জায়গায় (নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার) যেতে হবে। সুতরাং ওটা নিয়ে আলোচনা করতে হবে, সরকারকেই আসতে হবে। আমাদের কথা খুব স্পষ্ট যে, এই বিষয় ছাড়া আর কোনো বিষয়ে আলোচনার আমাদের কোনো আগ্রহ নেই।”

রাষ্ট্রীয় সংস্থা বাংলাদেশ বিমানের ই-মেইল সার্ভার হ্যাকারদের কবলে পড়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিএনপি। গতকাল মঙ্গলবার দলটির স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ বিষয়ে কথা হয়েছে বলে জানানো হয়।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, “বাংলাদেশ সরকারের ভূমি দপ্তরের কর্মচারী সুলতানা জেসমিনকে র‌্যাব বেআইনিভাবে তুলে নেওয়া এবং নির্যাতনের ফলে তার মৃত্যুর ঘটনায় গতকালের বৈঠকে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। বিএনপি মনে করে, সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে একজন নারীকে কোনো সুনির্দিষ্ট মামলা ছাড়াই তুলে নেওয়া এবং ফলশ্রুতিতে মৃত্যু আবারও প্রমাণ করেছে এই সরকারের অধীনে কর্মরত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা যথেচ্ছভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘন করেই চলেছে। সুলতানা জেসমিন র‌্যাব কাস্টডিতে মারা গেছেন যা, চরমভাবে মৌলিক অধিকারের লঙ্ঘন।”

About

Popular Links