Tuesday, June 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

কানাডা-দুবাইয়ে ঠাঁই না পেয়ে দেশে ফিরলেন মুরাদ

কানাডার অভিবাসন কর্মকর্তারা সাবেক প্রতিমন্ত্রীকে বাংলাদেশে নারীদের প্রতি অশালীন, শিষ্টাচারবহির্ভূত বিভিন্ন অভিযোগের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন

আপডেট : ১২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১৬ পিএম

বিতর্কিত রাজনীতিবীদ ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান দেশ ছেড়ে কানাডা এবং দুবাইয়ে ঢোকার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে দেশে ফিরে এসেছেন। অনলাইন প্ল্যাটফর্মে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ও তার নাতিকে নিয়ে অশালীন মন্তব্য এবং একটি অডিও ক্লিপ ভাইরাল হওয়ার পর মন্ত্রিত্ব থেকে পদত্যাগ করে দেশ ছেড়েছিলেন তিনি।

রবিবার (১২ ডিসেম্বর) বিকেল ৫টায় তাকে বহনকারী এমিরেটস এয়ারওয়েজের ফ্লাইটটি ঢাকায় অবতরণ করে। বিমানবন্দরের একজন জ্যেষ্ঠ ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ জানিয়ে বিমানবন্দরের এক কর্মকর্তা জানান, দুবাইয়ে প্রবেশের জন্য তার কোনো বৈধ ভিসা না থাকায় তিনি দেশে ফিরে আসেন।

এর আগে ৯ ডিসেম্বর দিবাগত রাত ১টা ২০ মিনিটের দিকে এমিরেটসের একটি ফ্লাইটে কানাডার উদ্দেশে দেশ ছাড়েন ডা. মুরাদ হাসান। এ বিষয়ে টরন্টোভিত্তিক বাংলা নিউজ পোর্টাল “দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডট কম” জানায়, ১০ ডিসেম্বর দিবাগত রাত ১.৩১ মিনিটে (কানাডিয়ান সময়) টরন্টো পিয়ারসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান মুরাদ।

কানাডার অভিবাসন কর্মকর্তারা সাবেক প্রতিমন্ত্রীকে বাংলাদেশে নারীদের প্রতি অশালীন, শিষ্টাচারবহির্ভূত বিভিন্ন অভিযোগের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। নিউজ পোর্টালটি বলছে, “কর্মকর্তারা তাকে জড়িয়ে বিভিন্ন ভিডিও, ছবি এবং খবর দেখায় এবং সেগুলো সম্পর্কে জানতে চান।”

এতে বলা হয়, মুরাদকে বাংলাদেশ ছেড়ে কানাডায় আসার কারণ সম্পর্কেও জিজ্ঞাসা করা হয়, কিন্তু তিনি কোনো “সন্তোষজনক উত্তর” দিতে ব্যর্থ হন। এরপর কানাডার বিমানবন্দর থেকে এমিরেটসের ফিরতি ফ্লাইটে মুরাদকে দুবাই ফেরত পাঠানো হয়।

এদিকে, মুরাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়েরের বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল শনিবার ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের বলেন, “রাষ্ট্র তার প্রতি ক্ষুব্ধ নয়।”

জাতীয় প্রেসক্লাবে নিরাপদ সড়ক চাই-এর এক অনুষ্ঠানে বক্তব্যে তিনি বলেন, “তবে কেউ যদি মুরাদের প্রতি ক্ষুব্ধ হয় তবে মামলা করতে পারে।”

১১ ডিসেম্বর  বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডিয়ান হাইকমিশনার জানান, তিনি (ডা. মুরাদ হাসান) কানাডা প্রবেশ করতে পারবেন কিনা, সেই সিদ্ধান্ত একান্তই নিতে পারে দেশটির ইমিগ্রেশন ও বর্ডার এজেন্সি।

একটি বেসরকারি টেলিভিশনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডীয় হাইকমিশনার বেনোই প্রেফনটেইন বলেন, “এ বিষয়ে তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করা হয়নি। তবে করোনাভাইরাসকালীন ভ্রমণের বিষয়ে বেশ কিছু বিধিনিষেধ আছে, যা দেশটিতে ভ্যালিড (বৈধ) ভিসা থাকা সব ভ্রমণকারীর জন্য প্রযোজ্য। তবে কোনো ব্যক্তির ভিসা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে দেশটির ইমিগ্রেশন ও বর্ডার এজেন্সি।”

এর আগে, গত ৬ ডিসেম্বর ডা. মুরাদ হাসানকে মন্ত্রীসভা থেকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তার বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে পদত্যাগের বিষয়টি জানান।

সংবাদ সন্মেলনে ওবায়দুল কাদের বলেন, “তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে আগামীকালের মধ্যে পদত্যাগ করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে বলেছেন, এ বিষয়টা আমি যাতে জানিয়ে দেই। আজ রাত ৮টার দিকে আমি তাকে বার্তাটি জানিয়ে দিয়েছি।”

উল্লেখ্য, সম্প্রতি খালেদা জিয়া ও তার নাতনি জাইমা রহমানকে আক্রমণ করে বক্তব্য দেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। এতে নিন্দার ঝড় ওঠে। এর মধ্যে ফেসবুকে একটি ফোন রেকর্ড ছড়িয়ে পড়ে। যেখানে তিনি একজন চিত্রনায়িকাকে তার কাছে যেতে বলেন। না গেলে গোয়েন্দা সংস্থা দিয়ে তুলে নেওয়ার হুমকি দেন। আর সেই নায়িকাকে ধর্ষণ করার ইচ্ছাও পোষণ করেন।

About

Popular Links