Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

জোট করেই ভোট, সমন্বয় হবে আসন

২০০৮ সাল থেকে জোটবদ্ধ হয়ে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে আওয়ামী লীগ

আপডেট : ২৭ নভেম্বর ২০২৩, ০৪:৩৪ পিএম

সংসদীয় ২৯৮টি আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঘোষণা করেছে আওয়ামী লীগ। তবে দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন, জোটভুক্ত দলগুলোর সঙ্গে সমঝোতার পর আসন সমন্বয় করা হবে।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) সিনেমা হল মালিকদের নবনির্বাচিত কমিটির সঙ্গে মতবিনিময়ের পর আসন সমন্বয়ের বিষয়ে কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

হাছান মাহমুদ জানান, জোটভুক্ত দলগুলোর সঙ্গে এখনও সমন্বয় না হওয়ায় প্রায় সব আসনে দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনের জন্য গত ১৮ থেকে ২১ নভেম্বর পর্যন্ত চার দিন আগ্রহীদের কাছে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করে আওয়ামী লীগ। রবিবার কুষ্টিয়া-২ ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসন ফাঁকা রেখে ২৯৮টি আসনে প্রার্থী ঘোষণা করে ক্ষমতাসীন দলটি।

২০০৮ সাল থেকেই জোটবদ্ধ হয়ে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে আওয়ামী লীগ। ২০১৪ সালে বিএনপি ও তার শরিকরা দশম সংসদ নির্বাচন বর্জন করে, কিন্তু অংশ নেয় আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট। ২০১৮ সালে একাদশ সংসদ নির্বাচনেও জোট করেই ভোটে নামে আওয়ামী লীগ।

সে প্রসঙ্গ তুলে হাছান মাহমুদ বলেন, “২০০৮ সালেও আমরা জোটবদ্ধভাবে নির্বাচন করেছিলাম, সেবারও কিন্তু প্রায় ৩০০ আসনে নমিনেশন দেওয়া হয়েছিল। পরে মহাজোটের মধ্যে সমন্বয় করা হয়েছিল।”

“গতবারও প্রায় সব আসনে নমিনেশন দিয়ে পরে জোটের সঙ্গে সমন্বয় করা হয়েছিল। এখনও ২৯৮ সিটে নমিনেশন দেওয়া হয়েছে। আমরা প্রথমেই বলেছি, আমরা জোটবদ্ধ নির্বাচন করব, সেটি কিন্তু আমাদের দলের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল।”

তিনি আরও বলেন, “নমিনেশন দিলেও জোটের সঙ্গে সমন্বয় করা হবে, কোন জায়গায় কীভাবে করা হবে সেটি যেহেতু ঠিক করা হয়নি সেজন্য সব আসনে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। পরে জোটের সাথে সমন্বয় করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আমরা ১৪ দলীয় জোটগতভাবে নির্বাচন করব। এছাড়া অন্যান্যদের সঙ্গে যদি সমন্বয় করতে হয় সেটিও করা হবে।”

ঢাকা-৮ আসনে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের আসনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিমকে মনোনয়ন দেওয়ায় কোনো ধরনের ‘‘বিব্রতকর’’ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে কি-না জানতে চাইলে হাছান বলেন, “অবশ্যই নয়। জোটের নেতারা কোথায় নির্বাচন করবে এবং তাদের সাথে আমাদের সমঝোতা, সমন্বয় হবে তখন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”

জনপ্রিয়তার দৌড়ে যারা পিছিয়ে পড়েছেন এবং বিভিন্ন কারণে বিতর্কিত, তাদের এবার মনোনয়ন দেওয়া হয়নি বলে জানান তথ্যমন্ত্রী।

About

Popular Links