Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নিক্সন: জাফরুল্লাহ হেরে হ্যাটট্রিক করবেন, আর আমি জিতে

তিনি বলেন, আজ চার দিন ধরে উনি (জাফরউল্লাহ) ঢাকায় বসে আছেন, কম্বল মুড়ি দিয়ে ঘুমাচ্ছেন

আপডেট : ২০ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৬:৫০ পিএম

“আমি তিনবার বিজয়ী হয়ে হ্যাটট্রিক করব আর কাজী জাফরউল্লাহ তিনবার হেরে হ্যাটট্রিক করবেন,” নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিষয়ে এমন মন্তব্য করেছেন ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য এবং আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন।

মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেলে ভাঙ্গা উপজেলার আজিমনগর ইউনিয়নের জাঙ্গালপাশা বাজারে নির্বাচনী জনসভায় উপস্থিত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

কাজী জাফরুল্লাহকে উদ্দেশ্য করে নিক্সন চৌধুরী বলেন, “দশম নির্বাচনে কাজী জাফরউল্লাহ আমার কাছে ২৮ হাজার ভোটে হেরেছিলেন। দ্বিতীয়বার একাদশ জাতীয় নির্বাচনে তিনি ৫৩ হাজার ভোটে হেরেছেন। এবারের দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে লক্ষাধিক ভোটে আমার কাছে হারবেন ইনশাআল্লাহ। আমি তিনবার বিজয়ী হয়ে হ্যাটট্রিক করব আর কাজী জাফরউল্লাহ তিনবার হেরে হ্যাটট্রিক করবেন এটা সময়ের ব্যাপার মাত্র।”

তিনি বলেন, “উন্নয়নে যদি ভোট হয়, বিপদে পাশে দাঁড়ালে যদি ভোট পাওয়া যায়, তাহলে এলাকার লোকজন আমাকে ভোট দেবেন। আজ চার দিন ধরে উনি ঢাকায় বসে আছেন। কম্বল মুড়ি দিয়ে ঘুমাচ্ছেন। এলাকায় আসেন না। আপনি নেতাদের সঙ্গে ধোঁকাবাজি করছেন। আস্তে আস্তে এভাবে একদিন ফোন বন্ধ করে নেতাদের বিপদে ফেলে চলে যাবেন।”

নিক্সন চৌধুরী বলেন, “গতবার সিংহের থাবায় পাঁচ বছর এলাকায় আসেন নাই। এবার ঈগল পাখির ছোবলে আরও ১০ বছর আসবেন না। আপনি তো চাচা দুইবার ইলেকশন করে ভাতিজাকে চিনলেন না। আপনি একটা না, অমন ১০০ প্লেয়ারও ভোট কাটার ক্ষমতা রাখেন না। বারবার আমার ফুফু (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) নৌকাটা আপনারে দেয়, বইঠাটা আমারে দেয়।”

জনসভার পর নিক্সন চৌধুরী সদরপুর উপজেলা সদরে, শৈলডুবি ও যাত্রাবাড়ী এলাকায় তার নির্বাচনী ক্যাম্প উদ্বোধন করেন। এরপর তিনি সদরপুরের কৃষ্ণপুর ইউনিয়নের দিকে চলে যান গণসংযোগ করতে। জনসভায় ফরিদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহদাৎ হোসেন ছাড়াও বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানরা উপস্থিত ছিলেন।

কাজী জাফর উল্যাহ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে তিনবার নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অন্যদিকে নিক্সন চৌধুরী প্রতিবারই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিভিন্ন প্রতীকে নির্বাচন করেছেন। ২০১৪ সালে নিক্সনের নির্বাচনী প্রতীক ছিল আনারস। ২০১৮ সালে ছিল প্রতীক ছিল সিংহ। এবার নিক্সন চৌধুরী ঈগল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

কাজী জাফর উল্ল্যাহ ফরিদপুর-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন। নিক্সন চৌধুরী ফরিদপুর-৪ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য এবং বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য। 

About

Popular Links