Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

শপথের জন্য সময় চেয়ে স্পিকারের কাছে জাতীয় পার্টির চিঠি

গত দুটি সংসদ নির্বাচনে ২০টির বেশি করে আসনে জয়ী হয়ে জাতীয় পার্টি টানা দুই বার বিরোধী দলের ভূমিকায় থাকলেও এবার দলটির আসন অর্ধেকে নেমে এসেছে

আপডেট : ০৯ জানুয়ারি ২০২৪, ০৫:৪৬ পিএম

জাতীয় পার্টির নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যদের বেশিরভাগই ঢাকার বাইরে থাকায় বুধবারের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারছেন না। ফলে শপথগ্রহণের জন্য আরও কিছুদিন সময় চেয়ে স্পিকারের কাছে চিঠি দিয়েছে জাতীয় পার্টি।

মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) সকালে শপথের জন্য আরও কিছুদিন সময় চেয়ে স্পিকারের কাছে চিঠি দেওয়া হয়। অনলাইন সংবাদমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ থেকে বিজয়ী জাপা নেতা সেলিম ওসমান।

জানা গেছে, মঙ্গলবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদে নবনির্বাচিতদের তালিকা বা ফল সরকারি গেজেট আকারে প্রকাশ করবে ইসি। গেজেট প্রকাশ হলে আইন অনুযায়ী তিন দিনের মধ্যে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথগ্রহণ করতে হবে নতুন সংসদ সদস্যদের।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সেলিম ওসমান বলেন, “আজ গেজেট হওয়ায় আমাদের দলের পক্ষ থেকে সময় চাওয়া হয়েছে। গেজেট অনুযায়ী কাল বুধবার শপথ। আমাদের বিজয়ী প্রার্থীরা সবাই এক জায়গায় আসতে সময় লাগছে। সে কারণে সময় চাওয়া হয়েছে। শপথ না নেওয়ার কোনো কারণ নাই।”

এখন পর্যন্ত ২৯৮টি আসনের বেসরকারি ফলাফল পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ২২২টি আসনে জয় পেয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। আর ৬২টি আসনে জয় পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। তাদের অধিকাংশই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। এছাড়াও আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের শরিক ওয়ার্কার্স পার্টি ও জাসদের একজন করে দুইজন জয়ী হয়েছেন। তারা আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকা নিয়ে ভোট করেন।

আওয়ামী লীগের পর দল হিসেবে এবার সবচেয়ে বেশি আসন পেয়েছে সংসদের বর্তমান প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি (জাপা)। দলটি মাত্র ১১টি আসন পেয়েছে।

গত দুটি সংসদ নির্বাচনে ২০টির বেশি করে আসনে জয়ী হয়ে জাতীয় পার্টি টানা দুই বার বিরোধী দলের ভূমিকায় থাকলেও এবার দলটির আসন অর্ধেকে নেমে এসেছে। এবারের ভোটে আওয়ামী লীগের কাছ থেকে ২৬টি আসনে ছাড় পেয়েছিল জাতীয় পার্টি। একাদশ সংসদে জাতীয় পার্টির আসনসংখ্যা (সংরক্ষিত নারী আসন বাদে) ছিল ২৩টি।

বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফল অনুযায়ী জাপার চেয়ারম্যান জি এম কাদের, মহাসচিব মো. মুজিবুল হক, কো-চেয়ারম্যান আনিসুল ইসলাম মাহমুদ ও এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী (ফেনী-৩), হাফিজ উদ্দিন আহমেদ (ঠাকুরগাঁও-৩), গোলাম কিবরিয়া (বরিশাল-৩), এ কে এম সেলিম ওসমান (নারায়ণগঞ্জ-৫), মো. আশরাফুজ্জামান (সাতক্ষীরা-২), এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান (কুড়িগ্রাম-১) ও শরিফুল ইসলাম (বগুড়া-২) নির্বাচিত হয়েছেন।

এক প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে স্থগিত হওয়া নওগাঁ-২ (পত্নীতলা ও ধামইরহাট) আসনে আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ময়মনসিংহ-৩ আসনের একটি কেন্দ্রে অনিয়ম হওয়ায় ফলাফল ঘোষণা স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন।

About

Popular Links