Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল

তবে বাসায় নেওয়ার বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি

আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০২৪, ০২:১৫ পিএম

দীর্ঘদিন ধরে রাজধানী ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা এখন স্থিতিশীল।অবস্থার অবনতি হওয়ায় মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) বিকেলে কেবিন থেকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) নেওয়া হয়। অবস্থার কিছুটা উন্নতি হওয়ার পর সন্ধ্যায় তাকে ফের কেবিনে আনা হয়।

এ বিষয়ে বুধবার বুধবার সকালে বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান অনলাইন সংবাদমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, “বিএনপির চেয়ারপার্সনের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল, তবে বাসায় নেওয়ার বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি।”

বিএনপি চেয়ারপার্সনের চিকিৎসক দলের সদস্য অধ্যাপক ডা. এজেএম জাহিদ হোসেন বলেন, “মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ম্যাডামের স্বাস্থ্যের অবনতি হলে সিসিইউতে নেওয়া হয়েছিল। পরে আবার কেবিনে নেওয়া আনা হয়। এখন শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।”

বিএনপির এক সূত্রের বরাত দিয়ে বাংলা ট্রিবিউন জানিয়েছে, বর্তমানে খালেদা জিয়া শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল থাকায় এক সপ্তাহের মধ্যে তাকে হাসপাতাল থেকে বাসায় নেওয়া হতে পারে।

২০১৮ সালে দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে কারাবন্দি হন খালেদা জিয়া। ২০২০ সালের মার্চ মাসে বিশেষ বিবেচনায় তাকে বাসায় থাকার অনুমতি দেওয়া হয়। ৭৭ বছর বয়সী এই সাবেক প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘদিন ধরে আর্থ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, কিডনি, লিভার সিরোসিসহ নানা রোগে ভুগছেন। ইতোমধ্যে কয়েকদফা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

সর্বশেষ ২০২৩ সালের ৯ আগস্ট থেকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের ভর্তি আছেন খালেদা জিয়া। এর মাঝে শারীরিক অবস্থা আরও অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে তার পরিবার থেকে সরকারের কাছে কয়েকদফা আবেদন করা হলেও অনুমতি মেলেনি।

গত ২৭ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্র থেকে তিনজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এনে ঢাকায় এভারকেয়ার হাসপাতালে বিএনপি নেত্রীর রক্তনালিতে অস্ত্রোপচার করা হয়।

About

Popular Links