Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ব্যারিস্টার সুমন: আমি আসলে প্রোডাক্ট অব শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী দেশ ডিজিটালাইজড না করলে ফেসবুকে বিপ্লব ঘটানো যেত না বলেও মন্তব্য করেন তিনি

আপডেট : ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৮:০০ পিএম

হবিগঞ্জ-৪ (চুনারুঘাট-মাধবপুর) আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন বলেছেন, আমাকে বলা হয় “ফেসবুক প্রোডাক্ট এমপি”, আসলে আমি প্রোডাক্ট অব শেখ হাসিনা।

শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে স্মার্ট উপহার ল্যাপটপ বিতরণী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন বলেন, “আমি নতুন মানুষ, ফেসবুকে কথা বলি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও বলেছেন- তুমিতো ফেসবুকের এমপি। আমাকে আপনারা ফেসবুকের এমপি বলেন। এটাও কিন্তু নেত্রীর কারণেই, সজীব ওয়াজেদ জয়ের কারণে এবং জুনাইদ আহমেদ পলকের কারণে। আমি যদি প্রোডাক্ট অব ফেসবুক হই, আসলে আমি প্রোডাক্ট অব শেখ হাসিনা। কারণ উনি যদি ডিজিটালাইজড না করতেন, তাহলে আমি ৫ মিলিয়ন, ৮ মিলিয়ন ফলোয়ার নিয়ে বিপ্লব ঘটাইতে পারতাম না।”

ব্যারিস্টার সুমন বলেন, “আজ শুধু সুমন ভাই বললে হবে না, পলক ভাই বলতে হবে। পলক ভাই আজ চুনারুঘাট-মাধবপুরের তরুণদের জন্য ডিজিটাল সেন্টার স্থাপনের ঘোষণা দেবেন। তাই পলক ভাইয়ের স্লোগান দিতে হবে। আমার রাজনীতির অভিভাবক জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি মো. আবু জাহিরের স্লোগান দিতে, না হলে কোথায় কীভাবে কী উন্নয়ন কাজ করতে হবে তা জানতে পারব না।”

তিনি আরও বলেন, “সংসদ সদস্য হওয়ার পর থেকে এ অনুষ্ঠানটি আয়োজনসহ এখন পর্যন্ত সাড়ে ২৭ লাখ টাকা খরচ করেছি, কিন্তু সরকারি বরাদ্দের ১,১০০ কম্বল ছাড়া কিছুই পাইনি। ব্যারিস্টারির ইনকাম দিয়ে এখনো চলছি। তবে এখন সংসদ সদস্য হওয়ায় লাভ হয়েছে। আগে কোনো মক্কেল আসলে ব্যারিস্টার বলে ৫০ হাজার দিত, এখন এমপি বলে দেয় ১ লাখ।”

হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোছা. জিলুফা সুলতানার সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন  হবিগঞ্জ-৩ (হবিগঞ্জ সদর-লাখাই-শায়েস্তাগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মো. আবু জাহির ও  হবিগঞ্জ-২ (বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ময়েজ উদ্দিন শরীফ।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন “নিজের বলার মতো একটা গল্প ফাউন্ডেশনের” প্রতিষ্ঠাতা ইকবাল বাহার, ইউটিউবার ও অভিনেতা সালমান মুক্তাদির, তৌহিদ আফ্রিদি, গায়ক তাসরিফ খান, ভিডিও ব্লগার সোলায়মান সুখন এবং সাংবাদিক ফারাবি হাফিজ।

About

Popular Links