Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রস্তুতি ম্যাচেও পাকিস্তানের জোচ্চুরি!

নতুন এক বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন পাকিস্তানি বোলার হাসান আলি।

আপডেট : ২৯ এপ্রিল ২০১৯, ০৭:৪৮ পিএম

বিতর্কিত কর্মকাণ্ড করে সমালোচনায় আসতে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের জুড়ি মেলা ভার। মাঠে এবং মাঠের বাইরে নিয়মিত অঘটন ঘন পটিয়সী তারা। বিতর্ক খুব বেশিদিন দূরে থাকেনা পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ছেড়ে। এবার নতুন এক বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন পাকিস্তানি বোলার হাসান আলি।

চলমান ইংল্যান্ড সফরের প্রস্তুতি ম্যাচে কাউন্টি ক্রিকেটের দল কেন্টের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে হাত থেকে ফেলে দেওয়া একটি বলকে 'ক্যাচ' দাবি করে লাফাতে শুরু করেন তিনি। যদিও ৫০ ওভারের ম্যাচটিতে ১০০ রানের ব্যবধানে হেসেখেলে জিতেছে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের দেওয়া ৩৫৮ রানের জবাব দিতে গিয়ে ৩০ ওভারে তিন উইকেটে ১৭৬ রান করেছিল কেন্ট। তখন ৮৯ রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন কেন্টের ব্যাটসম্যান অ্যালেক্স ব্লেক। হাসান আলির করা ওভারটিতে বোলারের হাতেই একটি ক্যাচ দেন তিনি।

কিন্তু সোমবার প্রকাশিত ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, ক্যাচটি আসলে মাটিতে ফেলে দিয়েছিলেন হাসান আলি।

কিন্তু দ্রুততার সাথে বলটি আবার ডান হাতে মুঠোবন্দি করার চেষ্টা করেন তিনি। সেখানে পুরোপুরি সফল না হলেও স্বভাবসুলভ উল্লাস করে উদযাপনে মাতেন হাসান।

তবে আউট হয়েছেন ভেবেই ক্রিজ ছেড়ে হাঁটতে শুরু করেন ৮৯ রানে ব্যাট করতে থাকা ব্লেক। কিন্তু তার সঙ্গী নন-স্ট্রাইক প্রান্তে থাকা ওলি রবিনসন ওই ক্যাচের বিরোধিতা করেন। তবে আম্পায়ারদের বোঝাতে ব্যর্থ হন তিনি।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে স্পট-ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পুরো ক্রিকেট দুনিয়ার কলঙ্ক হিসেবে আবির্ভূত হয় পাকিস্তান। সেবার দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় বিভিন্ন মেয়াদে তিন খেলোয়াড়কে সাজা দিয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

আসন্ন বিশ্বকাপের আগে একটি টি-টোয়েন্টি এবং পাঁচটি ওয়ানডে খেলার জন্য ইংল্যান্ড সফর করছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল।

উল্লেখ্য, ২০০৩ সালে মুলতান টেস্টে এক উইকেটে বাংলাদেশের বিপক্ষে ‘প্রশ্নবিদ্ধ’ জয় পেয়েছিল পাকিস্তান। সেই ম্যাচে পাকিস্তানের অধিনায়ক রশিদ লতিফ ক্যাচ নিয়েছিলেন অলক কাপালীর একটি বিতর্কিত ক্যাচ।

পেসার ইয়াসির আলীর বল কাপালির ব্যাট ছুঁয়ে যাওয়ার পর তালুবন্দি করতে পারেননি উইকেটরক্ষক রশিদ লতিফ। হাত ফসকে মাটিতে পড়ে গেলেও তুলে নিয়ে সতীর্থদের সঙ্গে উল্লাস করেন তিনি।

About

Popular Links