Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রেকর্ড গড়ে ১৪ বছর বয়সী চীনা ডাইভারের সোনা জয়

স্বদেশী ফু মিংজিয়ার পর সে-ই অলিম্পিকের এই ইভেন্টে দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ স্বর্ণপদকজয়ী

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ০৮:১৬ পিএম

১৩-১৪ বছর বয়সী বেশিরভাগ কিশোর-কিশোরীর চিন্তা থাকে কীভাবে স্কুল কিংবা সামাজিক প্রতিবন্ধকতার মোকাবিলা নিয়ে। কিন্তু চীনের ১৪ বছর বয়সী কোয়ান হোং চানের দুশ্চিন্তা ছিলো অলিম্পিকের বিশ্বমঞ্চে নামা নিয়ে। কিন্তু সব দুশ্চিন্তাকে জয় করে ঠিকই বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) নিজের দেশকে স্বর্ণপদক এনে দিয়েছে এই কিশোরী ডাইভার।

মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়।

১৪ বছর বয়সী কোয়ান হোংচান চলমান টোকিও অলিম্পিকে চীনের সর্বকনিষ্ঠ প্রতিযোগী। এই বয়সেই মেয়েদের ১০ মিটারের ডাইভিং ইভেন্টে সোনা জিতে বিশ্ববাসীকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে সে।

স্বর্ণজয়ের পরে নিজের অনুভূতির ব্যাপারে বলতে গিয়ে স্নায়ুচাপের কথা স্বীকার করে কোয়ান হোং সাংবাদিকদের জানিয়েছে, “আমি একটু বিচলিত ছিলাম। তবে তা খুব বেশি না, অল্পই।”

স্বদেশী ফু মিংজিয়ার পর কোয়ান হোংচানই এই ইভেন্টে দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ স্বর্ণপদকজয়ী। ফু মিংজিয়া ১৯৯২ সালের বার্সেলোনা অলিম্পিকে ১৩ বছর বয়সে সোনা জিতেছিলেন ফু।

নৈপুণ্যের জন্য ভক্তরা তাকে ভালোবেসে “ডাইভিং প্রডিজি” বললেও বিনয়ী কোয়ান হোংচানের জবাব, “আমার মনে হয় না আমি অসাধারণ কেউ। আমি পড়াশোনায় ভালো না। আপনারা আমাকে এসব প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করছেন কিন্তু আমি এখন আমার নিজের মধ্যে নেই।”

২০০৮, ২০১২ এবং ২০১৬ অলিম্পিকের পর ২০২০ অলিম্পিকেও মেয়েদের সবগুলো ডাইভিং ইভেন্টেই সোনা জিতে নিলো চীন। ২০০৪ এথেন্স অলিম্পিকে অস্ট্রেলিয়ার চ্যান্টেল নিউবেরি চীনের বাইরে সর্বশেষ নারী হিসেবে এই ইভেন্টে স্বর্ণপদক জিতেছিলেন।

প্যরিসে অনুষ্ঠিতব্য ২০২৪ অলিম্পিকেও নিজের সাফল্য টেনে নিয়ে যাবেন কি-না সেই প্রশ্নের জবাবে কোয়ান হোং চানের উত্তর ছিল, এখনই অত দূরে ভাবনা নেই। আপাতত নিজের সাফল্য উপভোগ করতে চায় সে।

নিজের সাফল্য উদযাপন নিয়ে কোয়ান হোং চান বলেছে, “আমি আজ রাতে অনেক সুস্বাদু খাবার খেতে চাই! আমার মনে হয় সেটি লতিয়াও (জনপ্রিয় চীনা মসলাযুক্ত জলখাবার) খাওয়া।”

About

Popular Links