Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

এমবাপ্পে: নেইমারকে ‘ভবঘুরে’ বলেছিলাম

তিনি আরও বলেন, হ্যাঁ, আমি এটা বলেছি। এখন এগুলো ফুটবলে সব সময় ঘটে থাকে

আপডেট : ০৫ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৪ পিএম

অবশেষে প্যারিস সেন্ট জার্মেইন (পিএসজি) সতীর্থ নেইমারের সঙ্গে বিরোধের বিষয়ে মুখ খুলেছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। তিনি গত মাসে মন্তেপেলিয়ারের বিপক্ষে দলের ২-০ ব্যবধানে জেতা ম্যাচে নেইমারকে ভবঘুরে (ট্রাম্প) বলেছিলেন।

ম্যাচে যখন ফরাসি তারকা এমবাপ্পেকে উঠিয়ে নেওয়া হয়েছিল তখন তিনি নেইমারের ওপর ক্ষোভ ঝাড়ছিলেন যা ক্যামেরায় ধরা পড়ে। তিনি বলছিলেন, “এই ভবঘুরে কখনই আমাকে পাস দেয় না।”

একটি সাক্ষাৎকারে এমবাপ্পে নিশ্চিত করেছেন যে, তিনি এই কথাগুলো বলেছেন। কিন্তু ব্রাজিল তারকার সঙ্গে তার কোনো সমস্যা নেই বলেও জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, “হ্যাঁ, হ্যাঁ, আমি এটা বলেছি। এখন এগুলো ফুটবলে সব সময় ঘটে থাকে। এটা চিরকাল ধরে রাখার মতো ব্যাপার না। এই কারণেই পরে, এটির সমাধান করতে আমি তার সঙ্গে কথা বলেছি।”

তিনি আরও বলেন, “আমরা অতীতে এরকম অনেক শব্দ বিনিময় করেছি এবং আমরা তা চালিয়ে যাব, কারণ আমরা জিততে চাই, কিন্তু কোনো কঠিন অনুভূতি থাকা উচিত নয়। আমি মোটেও বিরক্ত নই। কারণ আমি তাকে সম্মান করি এবং আমি তার প্রশংসা করি।”


আরও পড়ুন- এমবাপ্পের অভিযোগ: নেইমার আমাকে পাস দেয় না


এমবাপ্পে ইঙ্গিত দিয়েছেন যে, তিনি এখনও পিএসজি ছাড়ার ব্যাপারে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। তিনি ক্লাবকে রিয়াল মাদ্রিদ নিয়ে তার আগ্রহের কথা জানিয়েছিলেন।

ভবিষ্যতের সম্ভাব্য গন্তব্য সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে, এমবাপ্পে বলেন, “আমি এই গ্রীষ্মে চলে গেলে সেটি কেবল রিয়ালের জন্যই হতো।”

তরুণ এই স্ট্রাইকার আরও বলেন, “ইউরো ২০২০-এ ফ্রান্সের হয়ে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে পেনাল্টি মিস করার পর তিনি আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে খানিক বিরতি নেওয়ার কথা ভাবছি।”

এমবাপ্পে গোল করতে ব্যর্থ হওয়ার পর টুর্নামেন্টে তার পারফরম্যান্সের জন্য সমালোচিত এবং পেনাল্টি মিসের জন্য অনলাইনে বর্ণবাদেরও শিকার হয়েছিলেন।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, “আমি সবসময়ই ফরাসি জাতীয় দলকে সবকিছুর ঊর্ধ্বে রেখেছি এবং আমি সব সময় সবকিছুর ঊর্ধ্বেই রাখব। আমি ফরাসি জাতীয় দলের হয়ে খেলার জন্য কখনও একটি ইউরোও নেইনি এবং আমি সর্বদা আমার জাতীয় দলের হয়ে বিনামূল্যে খেলব। ফরাসি জাতীয় দলের প্রতি আমার এত ভালোবাসা যে আমি সব কিছু থেকে বিমূর্ত হয়ে গেলাম। যা আমাকে হতবাক করেছিল।”

About

Popular Links