Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নেইমার: আর্জেন্টিনা কি বিশ্বকাপ জয় করে ফেলেছে?

মাঠে কিছুটা পরিমিতবোধ থাকলেও লকাররুমে শিরোপা উদযাপনের সময়ে কোনো কিছুর কমতি রাখেননি খেলোয়াড়রা। তাতেই ঘটে বিপত্তি

আপডেট : ০৫ জুন ২০২২, ০২:৫৮ পিএম

ইতালিকে হারিয়ে লা ফিনালিসিমা তথা কনমেবল-উয়েফা কাপ অফ চ্যাম্পিয়ন্স জেতার পর এক বছরের ব্যবধানে দ্বিতীয় মেজর ট্রফি জেতার স্বাদ পেয়েছে আর্জেন্টিনা। আলবিসেলেস্তেদের শিরোপা জয়ের আনন্দ মাঠ থেকে অব্যাহত ছিল ড্রেসিংরুম পর্যন্ত।

মাঠে কিছুটা পরিমিতবোধ থাকলেও লকাররুমে শিরোপা উদযাপনের সময়ে কোনো কিছুর কমতি রাখেননি খেলোয়াড়রা। তাতেই ঘটে বিপত্তি। ড্রেসিংরুমে উদযাপনের তালে তালে এক ফাঁকে আকাশী-নীল শিবিরের খেলোয়াড়রা চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলকে খোঁচা দিয়ে বসেন।

খোঁচা খেয়ে বসেছিলেন না নেইমার। বিষয়টি নিয়ে যারপনাই বিরক্ত ব্রাজিলিয়ান তারকা সরাসরি আর্জেন্টাইনদের মাত্রাতিরিক্ত উদযাপনের যৌক্তিকতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করলেন। সেই সঙ্গে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন- এক ম্যাচের এক ট্রফি জয়ের মাধ্যমে আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জিতে ফেলেছে কি-না, তা নিয়েও।


বুধবার ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ইতালিকে ৩-০ গোলে হারায় আর্জেন্টিনা টুইটার

ঘটনা মঙ্গলবারের। ইংল্যান্ডের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ডিফেন্ডিং ইউরো চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে লা ফিনালিসিমা জিতে নেয় আর্জেন্টিনা। ম্যাচ শেষে আর্জেন্টাইনদের বাঁধভাঙ্গা উদযাপন অব্যাহত ছিল ড্রেসিংরুমেও। সেখানে আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়েরা গানের সুরে সুরে ব্রাজিলকে ব্যঙ্গ করে বসেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সেসবের দৃশ্য ছড়িয়ে পড়তে সময় লাগেনি। ভাইরাল হওয়া ভিডিওগুলোতে দেখা যায়, মিডফিল্ডার রদ্রিগো দি পল আর্জেন্টিনার পতাকা পরে আছেন, তার সঙ্গে বাকিরা গান গাইছেন। নিজ মাতৃভাষায় তাদের কণ্ঠে ছিল- ব্রাজিলিয়ানরা, কী হলো/ পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা এমন কুঁকড়ে গেল!/ মেসি রিও থেকে কাপ (কোপা আমেরিকা) জিতে এসেছে/ আমরা আর্জেন্টাইনরা সব সময়ই উল্লাস করব, মনে যে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্ন...ম্যারাডোনা থেকে মালভিনাস (ফকল্যান্ড দ্বীপপুঞ্জ) তো ভুলে যাইনি। আমরা সবাই এমন এবং সব সময় আর্জেন্টিনাকেই অনুসরণ করি।




এদিকে, ব্রিটিশ দৈনিক মিররেও আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়দের গানের কিছু পঙক্তি প্রকাশিত হয়েছে। সেগুলোর ব্যঙ্গার্থ দাঁড়ায়- কী হলো ব্রাজিল/ তোমরা এখনো অপেক্ষা/ হলোটা কী?/ বস্তিবাসীরা তো কাঁদছে/ বছরের পর বছর চলে যায়, তোমরা ’১৯৫০ বিশ্বকাপ নিয়েই পড়ে আছো/ ওরা ভয় পাচ্ছে যে এমন কিছু আবারও ঘটবে।

আরেকটি পঙক্তিতে বলা হয়, ...কারণ মুকুটটা মেসির/ তার বাঁ পায়ের জাদুতে সবাই মুগ্ধ/ ম্যারাডোনাকে স্মরণ করিয়ে দিলে বোধ হয় আরেকটু খারাপ লাগবে?/ খারাপ যে লাগে তা আমরা বুঝি/ কিন্তু শিরোপাটা আর্জেন্টিনারই।

বছরখানেক আগে মারাকানায় স্বাগতিক ব্রাজিলকে হারিয়ে ২৮ বছর পর কোপা আমেরিকা জিতে নেয় আর্জেন্টিনা। আর তার বদৌলতেই দুই মহাদেশের দুটি চ্যাম্পিয়ন দলের লড়াইখ্যাত লা ফিনালিসিমায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পায় আর্জেন্টিনা। মূলত গত বছর তৎকালীন ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ও স্বাগতিক ব্রাজিলকে তাদের মাটিতে হারিয়ে কোপা আমেরিকা জয়ের দিকে ইঙ্গিত করেই আর্জেন্টিনা খেলোয়াড়দের এমন উদযাপন।

একে তো ছিলেন পরাজিত দলে, তার ওপর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছ থেকে খোঁচা নিশ্চয়ই ভালো লাগার কথা না নেইমারের। আর্জেন্টিনার ডিফেন্ডার নিকোলাস ওতামেন্দি তার দলের ড্রেসিংরুমের উদযাপনের একটি ভিডিও ক্লিপ শেয়ার করার পরই তাতে নেইমার মন্তব্য করেন- তারা কি বিশ্বকাপ জিতে গিয়েছে।

যদিও মন্তব্যটি পরবর্তীতে মুছে দেন নেইমার। এমনকি, জনসম্মুখেও এ বিষয়ে কোনো বক্তব্য দেননি ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। তবে আর্জেন্টাইনদের খোঁচা দেওয়া উদযাপন যে নেইমারের শরীরে কাঁটার মতো বিঁধেছে, এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

About

Popular Links