Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বার্সায় আসতে না আসতেই হম্বিতম্বি শুরু রাফিনহার!

সামনের মৌসুমে বার্সেলোনা সম্ভাব্য সব শিরোপার জন্যই লড়াই করবে বলেই বিশ্বাস ২৫ বছর বয়সী ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ডের

আপডেট : ২১ জুলাই ২০২২, ১০:০৬ এএম

লিডস ইউনাইটেড থেকে রীতিমত যুদ্ধ করে বার্সেলোনায় যোগ দিয়েছেন রাফিনহা। চেলসি বড় অঙ্কের বেতন এবং ট্রান্সফার ফিয়ের প্রস্তাব দিলেও সেটি পায়ে ঠেলে স্প্যানিশ জায়ান্টের হয়ে খেলাটাকেই প্রাধান্য দিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার। বার্সেলোনায় এসে তিনি যে দারুণ খুশি, সেটা তার প্রেজেন্টেশনেও চোখে পড়েছে সবার।

বার্সেলোনার হয়ে ইতোমধ্যে মাঠেও নেমে পড়েছেন রাফিনহা। প্রাক মৌসুম সফরে কাতালান ক্লাবটি বর্তমানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানেই মেজর লিগ সকারের (এমএলএস) দল ইন্টার মিয়ামির বিরুদ্ধে মুখোমুখি হয় বার্সা। সেখানে মার্কিন ক্লাবটিকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা। সেই ম্যাচে নিজে এক গোল করার পাশাপাশি সতীর্থদের দিয়ে দুটি গোলও করেছেন রাফিনহা।

স্পানিশ গণমাধ্যম মার্কার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ইন্টার মিয়ামির বিপক্ষে বড় জয়ের পরই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদকে প্রচ্ছন্ন হুমকি দিয়েছেন সেলেসাও তারকা। এমনকি আগামী মৌসুমে রিয়ালের চেয়েও বার্সেলোনা ভালো করবে বলে দাবি করেছেন ২৫ বছর বয়সী উইঙ্গার।

রাফিনহা
ইন্টার মিয়ামির বিপক্ষে বার্সেলোনার রাফিনহা টুইটার

বার্সেলোনার জার্সিতে নিজের অভিষেক ম্যাচেই গোল পাওয়ার প্রসঙ্গে রাফিনহা বলেন, “ক্লাবের হয়ে প্রথম গোল করে আমি ভীষণ খুশি। দারুণ একটী ম্যাচ ছিল। আমি নিজেকে মেলে ধরার চেষ্টা করেছি। নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে আমি আনন্দিত এবং আশা করছি এটি অব্যাহত থাকবে।”

২০২১-২২ মৌসুমটি একরকম দুঃস্বপ্নের মতো গিয়েছে বার্সেলোনার জন্য। ঘরোয়া এবং মহাদেশীয় সব প্রতিযোগিতাতেই শিরোপাহীন ছিল কাতালান ক্লাবটি। তবে সামনের মৌসুমে বার্সেলোনা সম্ভাব্য সব শিরোপার জন্য লড়াই করবে বলেই বিশ্বাস। তখনই রিয়াল মাদ্রিদকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বসেন এ ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ড।

রাফিনহা বলেন, “যেকোনো খেলোয়াড়ই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে গোল করতে চায়। প্রতিপক্ষ যদি চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দল হয়, তাহলে সেই ইচ্ছে আরও বেড়ে যায়। তবে দলের জয়ই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আমার কাছে রিয়াল মাদ্রিদের চেয়েও বার্সেলোনা শ্রেয়তর।”

বার্সেলোনা দলের প্রসঙ্গে রাফিনহা বলেন, “বার্সেলোনা দলে দারুণ প্রতিভাবান কিছু তরুণ খেলোয়াড় রয়েছে। তারা সবাই বেশ ভালো করছে। শিরোপা জেতার জন্য তারা সর্বদাই লড়তে প্রস্তুত।”

তবে বার্সেলোনা আসলেই রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে শ্রেয়তর দল কি-না, তা দেখা যাবে আগামী ২৪ জুলাই। ওইদিন যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দল পরস্পরের মুখোমুখি হবে। ইন্টার মিয়ামির পর রিয়াল মাদ্রিদের বিরুদ্ধেও গোল পাওয়া নিয়ে রাফিনহার অবশ্য বেশ আশাবাদী।

About

Popular Links