Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

এমবাপ্পের দিকে তাকিয়ে চোট জর্জরিত ফ্রান্স

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত ১টায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে কাতার বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে ফরাসিরা

আপডেট : ২২ নভেম্বর ২০২২, ০৪:১৬ পিএম

২০১৮ সালে রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত ফিফা বিশ্বকাপে চার গোল করে টুর্নামেন্টের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কার পেয়েছিলেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। ২৩ বছর বয়সী এই ফরাসি ফরোয়ার্ড যে কাতার বিশ্বকাপের দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হবেন, সেটি অনুমিতই ছিল। তবে পরিস্থিতি বিচারে পুরো ফ্রান্স দলের ভারই এসে পড়েছে এমবাপ্পের কাঁধে।

বিশ্বকাপ ফুটবলের গত তিনটি আসরেই ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় নিয়েছে। “চ্যাম্পিয়ন'স কার্সের” ফাঁদে পড়ে ফ্রান্সকেও একই ভাগ্য বরণ করতে হবে কি-না, তা সময়ই বলে দেবে। তবে শিরোপা ধরে রাখার লড়াইয়ে নামার আগে চোটের সঙ্গে যুদ্ধ করতে হচ্ছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের।

কাতার বিশ্বকাপ শুরুর আগেই চোটের কারণে হারাতে হয়েছে গতবারের দুই বিশ্বকাপজয়ী সদস্য পল পগবা এবং এনগোলো কান্তেকে। চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণার পরেও চোট পিছু ছাড়েনি ফ্রান্স দলের। অনুশীলনে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটের কারণে সেন্টারব্যাক প্রেসনেল কিমপেম্বে এবং ফরোয়ার্ড ক্রিস্টোফার এনকুনকুর বিশ্বকাপ স্বপ্নও শেষ হয়ে যায়।

ফ্রান্স দলে চোটের সর্বশেষ শিকার করিম বেনজেমা। বাম উরুর চোটে কাতার বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেছেন ৩৪ বছর বয়সী স্ট্রাইকার। এবারের ব্যালন ডি অর জয়ী বেনজেমার অনুপস্থিতিতে এমবাপ্পের দিকেই তাকিয়ে আছেন ফ্রান্স কোচ দিদিয়ের দেশম।

সোমবার দিদিয়ের দেশম সাংবাদিকদের বলেন, সে (কিলিয়ান এমবাপ্পে) এখনও তরুণ একজন খেলোয়াড়। তবে সে ইতোমধ্যেই মাত্র চার বছর আগে দলের পক্ষে খুব গুরুত্বপূর্ণ কাজটি করেছিল। এরপর থেকে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সে আরও পরিণত হয়েছে এবং বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় তারকা হিসেবে পরিচিত।

ফ্রান্স কোচ আরও বলেন, স্কোয়াডে তার দায়িত্ব এখন আরও বেড়েছে। অন্য অনেক খেলোয়াড়ের মতো যেকোনো মুহূর্তে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা তার আছে। সে মাঠে পার্থক্য গড়ে দেওয়ার মতো একজন খেলোয়াড় এবং আমাদের সেটি প্রয়োজন। 

কাতার বিশ্বকাপে “ডি” গ্রুপে ফ্রান্সের সঙ্গী ডেনমার্ক, অস্ট্রেলিয়া এবং তিউনিশিয়া। মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত ১টায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে কাতার বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে ফরাসিরা। কাকতালীয়ভাবে, ফ্রান্সের ২০১৮ বিশ্বকাপ জয়ের শুরুটাও হয়েছিল অস্ট্রেলীয়দের বিপক্ষেই। পরবর্তীতে ২৬ নভেম্বর ডেনমার্ক এবং ৩০ নভেম্বর তিউনিশিয়ার মুখোমুখি হবে দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

About

Popular Links