Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রোনালদোকে শুরুর একাদশে না রাখায় অনুতাপ নেই কোচের

রোনালদোকে বেঞ্চে রাখার সিদ্ধান্ত কৌশলগত ছিল বলে জানান পর্তুগিজ কোচ ফার্নান্দো সান্তোস

আপডেট : ১১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৫৯ পিএম

কাতার বিশ্বকাপ যেন তারকা পতনের মঞ্চ হয়ে উঠেছে। কাতারেই ফুটবলের সর্বোচ্চ আসরে নিজ দলের হয়ে শেষবারের মতো খেলতে এসেছেন মেসি, নেইমার, রোনালদো, সুয়ারেজের মতো বড় তারকারা। সুয়ারেজ গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় নিলেও শেষ আটের লড়াইয়ে টিকে ছিল মেসি, নেইমার, রোনালদোরা।

শেষ আটের লড়াইয়ে প্রথম রাতে নেইমার বিদায় নিলেও সেমফিাইনালে উঠেছে মেসি আর্জেন্টিনা। এরপর ফুটবল ভক্তদের চোখ ছিল ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর দিকে। তবে কোয়ার্টার ফাইনালে মরোক্কোর কাছে হেরে বিদায় নিতে হয়েছে পর্তুগালকে। আর তাতেই হতাশায় শেষ হলো রোনালদোর বিশ্বকাপ মিশন। ম্যাচ শেষে দ্রুত টানেলের পথ ধরলেও চোখের পানি আড়াল করতে পারেননি সিআর সেভেন।

শনিবার (১০ ডিসেম্বর) কাতারের আল থুমামাহ স্টেডিয়ামে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে অধিনায়ক ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে ছাড়া মাঠে নেমেছিল পর্তুগাল।

তবে ম্যাচের ৫১ মিনিটে মাঠে নামেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।পর্তুগাল তখন এক গোলে পিছিয়ে। গোল শোধ করতে একের পর এক চেষ্টার কোনো ত্রুটি ছিল না সিআর সেভেনের। কিন্তু ভাগ্য হয়তো পক্ষে ছিল না। তাই মলিনতায় শেষ হলো রোনালদোর বিশ্বকাপ অধ্য়ায়।

তবে ভক্তদের অনেকেরেই মনে হতে পারে রোনালদো শুরুর একাদশে থাকলে ম্যাচের চিত্রটা ভিন্ন হতে পারতো। তবে এ নিয়ে কোনো অনুতাপ বা আক্ষেপ নেই রোনালদো বেঞ্চে বসিয়ে রাখার মূল কারিগর পর্তুগিজ কোচ ফার্নান্দো সান্তোসের।

ম্যাচের পরে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “আমার এ নিয়ে কোনো অনুশোচনা নেই। রোনালদো প্রথম একাদশে থাকলে কোনো কিছুই পরিবর্তন করতো না। সুইসদের বিরদ্ধে দুর্দান্ত খেলা দলে পরিবর্তন আনার কোনো কারণই দেখি না আমি।”

তবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া যে অনেক কঠিন ছিল তা জানিয়ে সান্তোস বলেন, “এটা ছিল কৌশলগত সিদ্ধান্ত। যেটা আমার হৃদয় থেকে নয়, মাথা থেকে এসেছে।”

About

Popular Links