Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মরোক্কোর বিপক্ষে শুরুর একাদশে রোনালদোকে না রাখায় জর্জিনার ক্ষোভ

রোনালদোর সঙ্গিনী জর্জিনা বলেন, ‘জীবন আমাদেরকে শিক্ষা দেয়। আজ আমরা হারিনি, বরং আমরা শিখেছি। ক্রিস্টিয়ানো, আমরা তোমার প্রশংসা করি’

আপডেট : ১১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:০৫ পিএম

কোয়ার্টার ফাইনালে মরোক্কোর কাছে হেরে কাতার বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল।

শনিবার (১০ ডিসেম্বর) কাতারের আল থুমামাহ স্টেডিয়ামে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে অধিনায়ক ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে মাঠে নেমেছিল পর্তুগাল।

তবে ম্যাচের ৫১ মিনিটে মাঠে নামেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। পর্তুগাল তখন এক গোলে পিছিয়ে। গোল শোধ করতে একের পর এক চেষ্টার কোনো ত্রুটি ছিল না সিআর সেভেনের। কিন্তু ভাগ্য হয়তো পক্ষে ছিল না।

তবে ভক্তদের অনেকেরেই মনে হতে পারে রোনালদো শুরুর একাদশে থাকলে ম্যাচের চিত্রটা ভিন্ন হতে পারতো। তবে এ নিয়ে কোনো অনুতাপ বা আক্ষেপ নেই রোনালদো বেঞ্চে বসিয়ে রাখার মূল কারিগর পর্তুগিজ কোচ ফার্নান্দো সান্তোসের।

সান্তোসের আক্ষেপ না থাকলেও রোনালদোকে শুরুর একাদশে না রাখায় তার প্রতি ক্ষোভ ঝাড়ছেন অনেকেই। এবার সে তালিকায় যুক্ত হলেন রোনালদোর সঙ্গিনী জর্জিনা রদ্রিগেজ। নিজের ভেরিফায়েড ইন্সট্রাগ্রাম অ্যাকাউন্টের স্টোরিতে পর্তুগাল কোচের সমালোচনা করেন জর্জিনা।

জর্জিনা লেখেন, "আজ তোমার (রোনালদো) বন্ধু এবং দলের কোচ ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেই বন্ধু তুমি যাকে অনেক শ্রদ্ধা করো। সেই বন্ধু (কোচ) নিজে দেখেছে যে তুমি মাঠে নামার পরে কীভাবে সবকিছু পরিবর্তন হয়েছে। কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে।"

ইন্সট্রাগ্রাম স্টোরিতে কোচকে উদ্দেশ্য করে জর্জিনা আরও বলেন, "আপনার সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্রকে, বিশ্বের সবচেয়ে সেরা খেলোয়াড়কে আপনি অবমূল্যায়ন করতে পারেন না। আপনি এমন কোনো খেলোয়াড়ের ওপর নির্ভর করতে পারেন যে সেটার যোগ্য না।"

ইন্সট্রাগ্রাম স্টোরির শেষে জর্জিনা বলেন, "জীবন আমাদেরকে শিক্ষা দেয়। আজ আমরা হারিনি, বরং আমরা শিখেছি। ক্রিস্টিয়ানো, আমরা তোমার প্রশংসা করি।"

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সঙ্গিনী জর্জিনা পর্তুগাল দলকে সমর্থন কাতার বিশ্বকাপে মাঠেই বসেই কয়েকটি ম্যাচ দেখেছেন।

রোনালদোকে শুরুর একাদশে না রাখায় কোচকে নিয়ে জর্জিনার সমালোচনামূলক পোষ্ট এটিই প্রথম নয়। এর আগেও শেষ ষোলোর ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে রোনালদোকে শুরু একাদশে না রাখার সিদ্ধান্তের সমালোচনাও করেছিলেন জর্জিনা।

তিনি লিখেছিলেন, "অভিনন্দন পর্তুগাল। যখন পর্তুগালের জাতীয় সংগীত চলছিল, তখন সকলের দৃষ্টি তোমার (রোনালদো) দিকে ছিল। বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়কে মাঠে ৯০ মিনিট খেলতে না দেখা লজ্জাজনক। কিন্তু তবুও দর্শকেরা তোমার (রোনালদো) নাম ধরে চিৎকার করে ডাকতে ভুলে যায়নি।"

About

Popular Links