Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

গোলপোস্ট আগলে রাখা নিষ্পলক প্রহরীরাও হতে পারেন সেমিফাইনালের নায়ক

আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স, ক্রোয়েশিয়া এবং মরক্কোর কাতার বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ওঠার পেছনে তাদের গোলরক্ষকের ভূমিকা অপরিসীম

আপডেট : ১৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০৯ পিএম

হাঁটি হাঁটি পা পা করে কাতার বিশ্বকাপ এসে দাঁড়িয়েছে সেমিফাইনালের মঞ্চে। ৩২টি দল নিয়ে শুরু হওয়া ফুটবলের বিশ্বযজ্ঞ থেকে একে একে ছিটকে গেছে ২৮টি দল। ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ দিয়ে তৈরি ৩৬ সেন্টিমিটার উচ্চতার সোনালি ট্রফি উঁচিয়ে ধরার স্বপ্ন চোখে নিয়ে টিকে আছে আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স, ক্রোয়েশিয়া এবং মরক্কো।

চারটি দলেরই সেমিফাইনালে ওঠার পেছনে তাদের গোলরক্ষকের ভূমিকা অপরিসীম। বিশেষ করে বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স বাদে বাকি তিন দল গোলরক্ষকের অসামান্য নৈপুণ্যে এ পর্যন্ত এসেছে বললেও কেউ খুব বেশি দ্বিমত করবে না।

চলুন তাহলে দেখে নিই কাতার বিশ্বকাপের শেষ চারে আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স, ক্রোয়েশিয়া এবং মরক্কোর আসার পেছনে তাদের তেকাঠির প্রহরীরা কীভাবে অবদান রেখেছেন-

এমিলিয়ানো মার্টিনেজ (আর্জেন্টিনা)

দীর্ঘ ২৮ বছর পর আর্জেন্টিনাকে কোপা আমেরিকার শিরোপা জেতানোর সময়েই গোলবারের নিচে এমিলিয়ানো মার্টিনেজের মুন্সিয়ানার পরিচয় মেলে। বিশেষ করে সেমিফাইনালে কলম্বিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে একে একে তিনটি পেনাল্টি ঠেকানো তো এখনও অনেকের চোখে ভাসার কথা। পরবর্তীতে ফাইনালে স্বাগতিক ব্রাজিলের বিরুদ্ধেও গোলবারের নিচে ছিলেন আস্থার পাত্র।

কাতার বিশ্বকাপে  প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে দুই গোল হজম করে অবশ্য এমিলিয়ানো মার্টিনেজের শুরুটা একটু নড়বড়েই হয়েছিল। আন্তর্জাতিক ফুটবলে জাতীয় দলের হয়ে খেলা ২৪টি ম্যাচে ৩০ বছর বয়সী এই গোলরক্ষকের পাওয়া প্রথম এবং এখন পর্যন্ত একমাত্র হারের স্বাদও ছিল সেটি। তবে এরপর দলের সঙ্গে ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরেছেন।

নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে টাইব্রেকারে দুটি শট ঠেকান আর্জেন্টিনার গোলরক্ষক এমি মাটিনেজটুইটার

শেষ আটে টাইব্রেকারের শুরু থেকেই আত্মবিশ্বাসী থাকা আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক মার্টিনেজ ঠেকিয়ে দেন নেদারল্যান্ডস অধিনায়ক ভার্জিল ভ্যান ডাইক এবং স্টিভেন বার্গুইসের নেওয়া পেনাল্টিও। ওই দুটি পেনাল্টি সেভই মেসিদের শেষ চারে তুলে দেয়। কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত কাতার বিশ্বকাপে ৫ গোল হজম করার বিপরীতে দুই ম্যাচে দলের গোলবার অক্ষত রেখেছিলেন এমিলিয়ানো মার্টিনেজ।

ডমিনিক লিভাকোভিচ (ক্রোয়েশিয়া)

২০১৮ বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়া যখন গোলরক্ষক ড্যানিজেল সুবাসিচের নৈপুণ্যে শেষ ষোলোয় ডেনমার্ক এবং কোয়ার্টার ফাইনালে স্বাগতিক রাশিয়াকে পরাস্ত করে, তখন ডমিনিক লিভাকোভিচ ছিলেন বেঞ্চে থাকা একজন বিকল্প। কালের পরিক্রমায় কাতার বিশ্বকাপে সেই শেষ ষোলো এবং কোয়ার্টার ফাইনালে এবার নায়ক হওয়ার ভার কাঁধে তুলে নিয়েছেন ২৭ বছর বয়সী গোলরক্ষক।

শেষ ষোলোয় জাপান এবং কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিল- দুই ম্যাচেই টাইব্রেকারে শট ঠেকিয়ে জয়ের নায়ক হয়ে উঠেছেন লিভাকোভিচ। দ্বিতীয় রাউন্ডে পেনাল্টি শুটআউটে ব্লু সামুরাইদের তিনটি শট ঠেকিয়ে দেন তিনি। শেষ আটে ব্রাজিলের বিরুদ্ধেও টাইব্রকারের প্রতিপক্ষের নেওয়া প্রথম শট রুখে দেন লিভাকোভিচ। পরে তাকে ফাঁকি দিয়ে সেলেসাওদের নেওয়া শট পোস্টে প্রতিহত হলে বিদায় নেয় পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

শেষ ষোলো আর কোয়ার্টার ফাইনালে টাইব্রেকারে ক্রোয়েশিয়ার জয়ের নায়ক ডমিনিক লিভাকোভিচ /টুইটার/টুইটার

নকআউট পর্বের টাইব্রেকার অংশ বাদ দিলেও তর্কসাপেক্ষে পুরো টুর্নামেন্টে ক্রোয়েশিয়ার সেরা খেলোয়াড় ছিলেন লিভাকোভিচ। পুরো টুর্নামেন্টে পাঁচ ম্যাচ খেলে তিন গোল হজম করে দুটি ম্যাচে ক্লিনশিট রেখেছেন। ব্রাজিলের বিরুদ্ধে একে একে ১৩টি সেভ দিয়ে মর্যাদাপূর্ণ ফরাসি ক্রীড়া সংবাদপত্র এল ইকুইপের ইতিহাসে ১৫তম খেলোয়াড় হিসেবে দশে দশ রেটিং পেয়েছেন দলের একমাত্র ফুটবলার হিসেবে স্বদেশি ক্লাবে খেলা এই গোলরক্ষক।

ইয়াসিন বুনো (মরক্কো)

বিশ্বকাপের ৯২ বছরের ইতিহাসে প্রথম আরব আফ্রিকান দেশ হিসেবে টুর্নামেন্টের সেমিফাইনানালে পা রেখেছে মরক্কো। অ্যাটলাস লায়নদের এই অসামান্য অর্জনে দলের গোলরক্ষক ইয়াসিন বুনোর অবদানই সবচেয়ে বেশি। বেলজিয়াম-ক্রোয়েশিয়ার মতো দলকে গ্রুপসঙ্গী হিসেবে পেলেও গোলবারের সামনে তার নির্ভরতার ওপর ভর করেই গ্রুপসেরা হিসেবে নকআউট পর্বের টিকিট পেয়েছে মরক্কো।

টাইব্রকার পর্বের কথা মাথায় রেখে বছরখানেক ধরে এক হাজার পেনাল্টি অনুশীলন করে এসেছিল স্পেনের খেলোয়াড়রা। কিন্তু শেষ ষোলোয় ইয়াসিন বুনো নামের মানব দেয়াল টপকাতে পারেনি স্প্যানিশরা। একে একে লা রোজাদের তিনটি পেনাল্টি ঠেকিয়ে নায়ক হন তিনি। কোয়ার্টার ফাইনালেও পর্তুগালের বিরুদ্ধে ইয়াসিন বুনো হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন চীনের প্রাচীর। বিশেষ করে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর ওয়ান টাচ জোয়াও ফেলিক্সের বাঁকানো শটটিকে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করাটা ছিল বিশেষ কিছু।

শেষ ষোলোয় টাইব্রেকারে স্পেনের তিনটি শট ঠেকান মরক্কোর ইয়াসিন বোনু/টুইটার

কাতার বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত পাঁচ ম্যাচ খেলে মাত্র একটি গোল হজম করেছেন ইয়াসিন বুনো। সেই গোলটিও প্রতিপক্ষ কারও কাছ থেকে হজম করতে হয়নি, ছিল আত্মঘাতী। নামের পাশে তিনটি ক্লিনশিট নিয়েই তাই সেমিফাইনালে নামছেন ৩১ বছর বয়সী এই মরোক্কান গোলরক্ষক।  

হুগো লরিস (ফ্রান্স)

ফ্রান্সের হুগো লরিসকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কিছু নেই। ২০১৮ সালে অধিনায়ক হিসেবে ফরাসিদের হয়ে বিশ্বকাপ ট্রফি উঁচিয়ে ধরেছিলেন ৩৫ বছর বয়সী এই গোলরক্ষক। কাতার বিশ্বকাপেও তারকাসমৃদ্ধ ফ্রান্স দলে চুপিসারে নিজের কাজ করে যাচ্ছেন লরিস।

কাতার বিশ্বকাপ চলাকালেই কিংবদন্তি লিলিয়ান থুরামকে টপকে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফ্রান্সের হয়ে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার রেকর্ড নিজের দখলে নিয়েছেন হুগো লরিস। কিলিয়ান এমবাপ্পে, অলিভিয়ের জিরুদ, আন্তোয়ান গ্রিজম্যানদের কল্যাণে এখনও খুব বড় কোনো পরীক্ষার মুখোমুখি হতে হয়নি তাকে।

বিশ্বকাপ ইতিহাসের প্রথম অধিনায়ক হিসেবে টানা দুবার শিরোপা উঁচিয়ে ধরার হাতছানি ফ্রান্সের হুগো লরিসের সামনে/টুইটার

কাতার বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত পাঁচ ম্যাচ খেলে পাঁচটি গোল হজম করেছেন। সেমিফাইনালের গোলরক্ষকদের মধ্যে একমাত্র তার নামের পাশেই কোনো ক্লিনশিট নেই। তবে ফ্রান্স যদি আবারও চ্যাম্পিয়ন হতে পারে, তাহলে বিশ্বকাপ ইতিহাসের প্রথম অধিনায়ক হিসেবে টানা দুবার শিরোপা উঁচিয়ে ধরার বিরল কৃতিত্বের অধিকারী হবেন লরিস।

About

Popular Links