Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

পিএসজি ছাড়লে যে পাঁচ ক্লাব হতে পারে মেসির পরবর্তী গন্তব্য

শোনা যাচ্ছে, চুক্তি নবায়ন নিয়ে মেসির সঙ্গে পিএসজির আলোচনা প্রথম দফায় ফলপ্রসূ হয়নি

আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৫:৫৫ পিএম

২১ বছরের বন্ধন ছিন্ন করে বার্সেলোনা ছাড়ার পর ২০২১ সালে ফ্রি ট্রান্সফারে পিএসজিতে যোগ দেন লিওনেল মেসি। ফরাসি ক্লাবটির সঙ্গে মেসির দুই বছরের চুক্তির মেয়াদ শেষ আগামী জুনে। পিএসজির সঙ্গে চুক্তি নবায়ন নিয়ে লিওনেল মেসির আলোচনা চলছে অনেকদিন ধরেই।

বর্তমান চুক্তির মেয়াদের আর সাড়ে চার মাস বাকি থাকলেও নবায়ন নিয়ে এখনও কোনো পাকা খবর আসেনি। শোনা যাচ্ছে, চুক্তি নবায়ন নিয়ে মেসির সঙ্গে পিএসজির আলোচনা প্রথম দফায় ফলপ্রসূ হয়নি। মূলত বেতন-ভাতা ও সময়কাল নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে মতবিরোধ হয়। এদিকে, ফিন্যান্সিয়াল ফেয়ার-প্লে রুল থেকে বাঁচতে খেলোয়াড়দের বেতন-ভাতার খরচ কমাতে চাইছে পিএসজি।

মৌসুম শেষে লিওনেল মেসিকে আর পিএসজির জার্সিতে দেখা যাবে নাকি, তা সময়ই বলে দেবে। তবে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড সত্যিই যদি আসন্ন গ্রীষ্মকালীন দলবদলে পিএসজি ছাড়েন, তাহলে নিচের পাঁচ ক্লাব হতে পারে তার ভবিষ্যৎ গন্তব্য-

বার্সেলোনা

লিওনেল মেসির গায়ে বার্সেলোনা ছাড়া অন্য ক্লাবের জার্সি দেখতে হবে- এক সময় এমনটা দূরতম কল্পনায়ও আনেননি ফুটবলপ্রেমীরা। কিন্তু লা লিগার আর্থিক কাঠামোগত প্রতিবন্ধকতায় ফুটবল বিশ্বের চোখ কপালে তুলে দিয়ে বছর দেড়েক আগে বার্সেলোনা ছাড়তে হয় মেসিকে। তবে ন্যু ক্যাম্প ছাড়লেও বার্সেলোনা এখনও মেসির হৃদয়ে আছে। কাতালান ক্লাবটিও একাধিকবার মেসির ফেরা নিয়ে ইতিবাচক বার্তা দিয়েছে। কিন্তু বার্সেলোনায় ফেরা নিয়ে মেসির বাবা এবং ভাইয়ের সাম্প্রতিক নেতিবাচক মন্তব্য তাতে সংশয়ের সৃষ্টি করেছে।

ইন্টার মিয়ামি

ইউরোপিয়ান পাট চুকিয়ে লিওনেল মেসি যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ সকারে (এমএলএস) নাম লেখাতে পারেন বলে গুঞ্জন রয়েছে। এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে আছে ডেভিড বেকহ্যামের মালিকানাধীন ইন্টার মিয়ামি। মেসিকে দলে টানতে ক্লাবটি এমএলএসের ইতিহাসে সর্বোচ্চ বেতন দিতেও কার্পণ্য নেই মার্কিন ক্লাবটির। তাছাড়া, ছুটিতে একাধিকবার পরিবারের সঙ্গে মেসি যুক্তরাষ্ট্রের প্রিয় মিয়ামি শহরটিতে গিয়েছেন।

ম্যানচেস্টার সিটি

বছর দেড়েক আগে লিওনেল মেসি যখন বার্সেলোনা ছাড়ছিলেন, তখন তার সম্ভাব্য গন্তব্য হিসেবে সবচেয়ে বেশি শোনা যাচ্ছিল ম্যানচেস্টার সিটির নাম। সিটি কোচ গার্দিওলা যখন বার্সেলোনার দায়িত্ব ছিলেন, তখন থেকেই তার সবচেয়ে কাছের এবং পছন্দের খেলোয়াড় মেসি। কাতালান ক্লাবটির ডাগআউট ছাড়লেও বিভিন্ন সময় মেসিকে বাঁধভাঙা প্রশংসায়ও ভাসিয়েছেন এ স্প্যানিশ কোচ। মেসির সম্ভাব্য পরবর্তী গন্তব্য হিসেবে ম্যানচেস্টার সিটির নাম গুঞ্জন ওঠার আরেকটি কারণ হলো হাতেগোনা যে কয়টি দল মেসির বড় অঙ্কের বেতন দিতে সক্ষম, তার মধ্যে অন্যতম হলো এ ইংলিশ ক্লাব।

আল হিলাল

মেসির নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো কয়েকদিন আগেই সৌদি আরবের ফুটবলে নাম লিখিয়েছেন। আল নাসর যখন পর্তুগিজ তারকার সঙ্গে চুক্তিতে ব্যস্ত, তখন তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আল হিলালও মেসিকে দলে টানতে ইচ্ছুক বলে গুঞ্জন ওঠে। এমনকি বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টাইন তারকার জন্য রেকর্ড ৩০ কোটি ডলারেরও প্রস্তাব দেয় বলে শোনা যায়, যদিও পরবর্তীতে সেটির কোনো ভিত্তি পাওয়া যায়নি। তবে মেসিকে দলে ভেড়াতে সৌদি ক্লাবটির ইচ্ছার কথা স্পষ্ট।

নিউওয়েলস ওল্ড বয়েজ

১৩ বছর বয়সে বার্সেলোনার অ্যাকাডেমি লা ম্যাসিয়ায় যোগ দেওয়ার আগে মেসির ক্যারিয়ার শুরু হয় নিউওয়েলস ওল্ড বয়েজের হয়েই। ক্যারিয়ারের বিভিন্ন সময়েই আর্জেন্টাইন ক্লাবটির হয়ে খেলার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন ৩৫ বছর বয়সী এ ফরোয়ার্ড। এমনকি স্বদেশি ক্লাবটিতেই ক্যারিয়ারের ইতি টানার পরিকল্পনার কথা অনেকবার বলেছেন মেসি। তিনি পিএসজি ছাড়লে শৈশবের ক্লাবটিতে ফেরার জন্যে এর চেয়ে উপযুক্ত সময় আর নেই।

About

Popular Links