Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

জন্মদিনে তামিমের নতুন মাইলফলক

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে এ মাইলফলক গড়লেন তামিম ইকবাল

আপডেট : ২০ মার্চ ২০২৩, ০৫:১৬ পিএম

বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের অনেক কিছুতেই প্রথম তামিম ইকবাল। টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে তামিম অনেকদিন ধরেই ব্রাত্য। ওয়ানডে ফরম্যাটেও দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশ ওপেনারের ব্যাটে রান নেই। তবে নিজের ৩৪তম জন্মদিনে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে অসাধারণ একটি মাইলফলক গড়লেন তিনি।

সোমবার (২০ মার্চ) সিলেটে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে (তিন ফরম্যাট মিলিয়ে) ১৫ হাজার রান পূর্ণ করলেন তামিম ইকবাল।

মাইলফলক ১৪ রান দূরে থাকতে সিলেটে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলতে নামেন তামিম। মার্ক অ্যাডাইরের করা ইনিংসের নবম ওভারে তৃতীয় বলে ২ রান নিয়ে ১৫ হাজারী ক্লাবে ঢুকেন জাতীয় দলের অভিজ্ঞ এ ওপেনার। যদিও পরবর্তীতে মাত্র ২৩ রান করেই রানআউট হন তামিম।

২০০৭ সালে অভিষেক হওয়ার পর ক্রিকেটের সব সংস্করণ মিলিয়ে ৪৪৪ ম্যাচে ৩৫.৪৬ গড়ে ১৫ হাজার ৯ রান হলো তামিমের। বাহাঁতি এ ওপেনার ব্যাট থেকে এসেছে ২৫টি শতক এবং ৯৩টি অর্ধশতক। যদিও বিশ্ব একাদশ এবং এশিয়া একাদশের হয়ে ম্যাচ খেলায় বাংলাদেশের হয়ে ১৫ হাজারী ক্লাবে ঢুকতে এখনও ৪৮ রান দূরে এ ব্যাটার।

ওয়ানডে ফরম্যাটে ২৩৬ ম্যাচ খেলে ৩৬.৩৯ গড়ে আট হাজার ১৬৯ রান করেছেন তামিম, যা বাংলাদেশি ব্যাটারদের মধ্যে সর্বোচ্চ। রানের মতো ওয়ানডেতে সেঞ্চুরির তালিকাতেও বাংলাদেশি ব্যাটারদের মধ্যে সবার ওপরে তামিম। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে তার ব্যাট থেকে এসেছে ১৫টি সেঞ্চুরি।

টেস্ট ক্রিকেটে ৬৯ ম্যাচে ৩৯.০৯ গড়ে তামিমের রানসংখ্যা পাঁচ হাজার ৮২, যা বাংলাদেশি ব্যাটারদের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। সাদা পোশাকে তামিমের শতক সংখ্যা ১০টি, যা বাংলাদেশিদের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। ১১ সেঞ্চুরি নিয়ে শুধু মুমিনুল হকই তার চেয়ে এগিয়ে আছেন।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৭৮ ম্যাচে ১১৬.৯৬ স্ট্রাইক রেটে এক হাজার ৭৫৮ রান করেছেন তামিম। বাংলাদেশের একমাত্র ব্যাটার হিসেবের ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম সংস্করণে সেঞ্চুরি হাঁকানোর নজির আছে শুধু ৩৪ বছর বয়সী এ ব্যাটারেরই।

বাংলাদেশিদের মধ্যে প্রথম হলেও বিশ্বের ৪০তম খেলোয়াড় হিসেবে ১৫ হাজারি ক্লাবে প্রবেশ করেছেন তামিম। সব সংস্করণ মিলিয়ে ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বোচ্চ রান করেছেন ভারতীয় ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার। ৪৮.৫২ গড়ে সর্বোচ্চ ৩৪ হাজার ৩৫৭ রান করেছেন এ জীবন্ত কিংবদন্তি।

তামিম ছাড়াও বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে ১৫ হাজারি ক্লাবে ঢোকার ভালো সম্ভাবনা রয়েছে উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিম এবং অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের। তিন সংস্করণ মিলিয়ে ৩৩.৫৭ গড়ে মুশফিক ১৩ হাজার ৭৬৬ রান করেছেন। অন্যদিকে, তিন সংস্করণে ৩৪.৫৫ গড়ে ১৩ হাজার ৭১৭ রান করে তারপরই আছেন সাকিব।

About

Popular Links