Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সৌদি আরবে মেসি-বেনজেমার অপেক্ষায় রোনালদো

আল নাসরে এখন পর্যন্ত কোনো শিরোপা না জিতলেও রোনালদো জানান, তিনি সৌদি আরবেই থাকছেন

আপডেট : ০২ জুন ২০২৩, ০৫:৫২ পিএম

কাতার বিশ্বকাপের মধ্যে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে চুক্তি বাতিলের পর গত বছরের শেষদিকে আল নাসরে যোগ দেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। আল নাসরে পাড়ি দেওয়ার পর প্রথম মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযেগিতা মিলিয়ে ১৪ গোল করেছেন সিআর সেভেন। যদিও সৌদি ক্লাবটির হয়ে রোনালদোর প্রথম মৌসুমটা ভালো যায়নি, কোনো শিরোপা ছাড়াই শেষ করতে হয়েছে খালি হাতে।

সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সাংবাদমাধ্যমে গুঞ্জন রটে, সৌদি আরব থেকে আবারও ইউরোপের ক্লাব ফুটবলে ফেরার পথ খুঁজছেন। কিন্তু ৩৮ বছর বয়সী পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড সব গুজবে জল ঢেলে দিয়ে জানিয়েছেন, সামনের মৌসুমেও তিনি আল নাসরেই থাকছেন। শুধু তাই না, করিম বেনজেমা ও লিওনেল মেসির মতো খেলোয়াড়রা সৌদি ফুটবলে এলে তাদের স্বাগত জানাতে তিনি প্রস্তুত আছেন।

খেলাধুলাভিত্তিক সাংবাদমাধ্যমের গোল ডট কমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গণমাধ্যমকর্মীদের রোনালদো বলেন, “এখানে আমি দারুণ খুশি। আমি এখানে খেলা চালিয়ে যেতে চাই এবং ভবিষ্যতেও অব্যাহত রাখব। নতুন মৌসুমে দল আরও শক্তিশালী হবে। আমরা গত ৫-৬ মাসে উন্নতি করেছি এবং আমি আত্মবিশ্বাসী যে শিগগিরই আমরা শিরোপা জিতব।”

২০৩০ বিশ্বকাপ সামনে রেখে নিজেদের ফুটবলকে তারার হাট বানানোর লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছে সৌদি আরব। রোনালদো তো আগেই আল নাসরে যোগ দিয়েছেন, সাতবারের ব্যালন ডি অর জয়ী ফুটবলার লিওনেল মেসিকে দলে টানার চেষ্টায় আছে আরেক সৌদি ক্লাব আল হিলাল। এদিকে, আল-ইত্তিহাদে রোনালদোর এক সময়ের রিয়াল মাদ্রিদ সতীর্থ করিম বেনজেমার দলবদলে নিয়ে সম্প্রতি ইউরোপীয় গণমাধ্যম সরব হয়ে উঠেছে। এছাড়া, চলমান মৌসুম শেষে বার্সেলোনা ছাড়া সার্জিও বুসকেটস এবং জর্ডি আলবার ওপরেও নজর রাখছে সৌদি আরবের ক্লাবগুলো।

কিছুদিন আগে রোনালদো বলেছিলেন, সৌদি আরবের ফুটবল লিগ বিশ্বের সেরা পাঁচটি লিগের অন্যতম হবে। বেনজেমা-মেসির আগমনের মাধ্যমে সৌদি প্রো লিগের মান বাড়বে, ফলে তা প্রতিযেগিতাটির জন্য মঙ্গলকর বলেই ধারণা পর্তুগিজ মহাতারকার। তাই ইউরোপীয় ফুটবলের দুই তারকাকে আগাম স্বাগত জানালেন রোনালদো।

মেসিকে দলে টানতে বছরে ৬০০ মিলিয়ন ইউরোর অকল্পনীয় প্রস্তাব দিয়েছে আল হিলাল। এখন পর্যন্ত এ বিষয় দুই পক্ষের মধ্যে পাকাপাকি কোনো কথা হয়নি। তবে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে জোর গুঞ্জন, প্রাথমিকভাবে সৌদি ক্লাবটির প্রস্তাব বিবেচনায় নিয়েছেন মেসির বাবা ও এজেন্ট হোর্হে মেসি।

অন্যদিকে, দুই বছরের জন্য বেনজেমাকে মোট ৪০০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম এল মুন্ডো জানায়, সৌদি সরকারের কাছ থেকেই বেনজেমার জন্য এ প্রস্তাব এসেছে।

পারিশ্রমিক ছাড়াও বেনজেমার সামনে সৌদি আরবের কাছ থেকে আসা প্রস্তাবটি বেশ কিছু কারণে লোভনীয়। সৌদি আরবের ক্লাব ফুটবলে বড় অঙ্কের পারিশ্রমিকের পাশাপাশি বেনজেমা নিজের ইমেজ স্বত্বের পুরোটাই পাবেন। সৌদি আরবে কোথায় থাকবেন, সেটার সিদ্ধান্তও এ বর্ষীয়ান ফরোয়ার্ড নিজেই নিতে পারবেন। এছাড়া, দূত (অ্যাম্বাসেডর) হিসেবে কাজ করে ২০৩০ বিশ্বকাপের যৌথ আয়োজক হওয়ার লক্ষ্যে সৌদি আরবকে সহায়তাও করার দায়িত্বও থাকছে ফরাসি স্ট্রাইকারের কাঁধে।

সৌদি আরবের ফুটবলে মেসি-বেনজেমার সম্ভাব্য আগমন প্রসঙ্গে রোনালদো বলেন, “তারা যদি আসে তাহলে স্বাগতম। তাদের মাপের খেলোয়াড় আসলে লিগের মান অনেক বেড়ে যাবে। এখনও এখানে আরবের দুর্দান্ত কিছু খেলোয়াড় আছেন, বাইরের অনেক ভালো খেলোয়াড়ও আছেন।”

ইউরোপিয়ান ফুটবলের পাঠ চুকিয়ে গত বছরের ডিসেম্বরের শেষদিকে লোভনীয় অঙ্কের বেতনে আল নাসরে যোগ দেন রোনালদো। সৌদি আরবের ক্লাবটির হয়ে ২০২২-২৩ মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ১৪ গোল করেছেন ৩৮ বছর বয়সী এ পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড, যার সবগুলোই এসেছে সৌদি প্রো লিগে। রোনালদো নিজের জায়গা থেকে শতভাগ দিলেও তার দলকে শিরোপা লড়াইয়ে রাখতে যথেষ্ট হয়নি।

জানুয়ারিতে আল ইতিহাদের কাছে হেরে সুপার কাপ প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নিয়েছিল আল নাসর। আল ওয়েহদার কাছে হেরে গত এপ্রিলে সৌদি কিংস কাপ থেকেও ছিটকে যায় তারা। আল ইত্তিহাদের চেয়ে পাঁচ পয়েন্ট পেছনে থেকে মৌসুম শেষ করায় সৌদি প্রো লিগ থেকেও আল নাসরকে খালি হাতেই ফিরতে হয়েছে।

About

Popular Links