Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ক্ষমা চেয়ে প্রেমিকার কাছে নেইমারের চিঠি

গত সপ্তাহে নেইমারের বিরুদ্ধে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের ইনফ্লুয়েন্সার ফার্নান্দো কাম্পোসের সঙ্গে সম্পর্কের গুঞ্জন ওঠে

আপডেট : ২২ জুন ২০২৩, ১০:১০ পিএম

ফেব্রুয়ারিতে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের ম্যাচে গোড়ালিতে চোট পেয়ে অস্ত্রোপচারের জন্য নেইমারকে শল্যবিদের ছুরিকাঁচির নিচে যেতে হয়েছিল। পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় থাকার কারণে এরপর আর মাঠে ফেরেননি ব্রাজিলিয়ান তারকা। এরই মাঝে গত এপ্রিলে বাবা হওয়ার সুসংবাদ দেন নেইমার। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে নেইমারের সঙ্গে নিজের “বেবি বাম্প” এর ছবি প্রকাশ করে প্রেমিকা ব্রুনা বিয়ানকার্দি নিজেই খবরটি নিশ্চিত করেন।

কিন্তু এর মাঝেই পিএসজি তারকার সঙ্গে সন্তানসম্ভবা প্রেমিকার সম্পর্কের অবনতি ঘটেছে। গত সপ্তাহে নেইমারের বিরুদ্ধে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের ইনফ্লুয়েন্সার ফার্নান্দো কাম্পোসের সঙ্গে সম্পর্কের গুঞ্জন ওঠে। ব্রাজিলিয়ান সংবাদকর্মী এরলান বাস্তোস জানান, ব্রুনার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে নেইমারের একটি চুক্তি আছে। সেই চুক্তি অনুযায়ী, পিএসজির ৩১ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড চাইলে অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্কে জড়াতে পারবেন।

কিন্তু নেইমারের প্রেমিকা ব্রুনা বিয়ানকার্দি এ দাবি অস্বীকার করেন। শুধু তাই না, বাস্তোসের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন ব্রুনা। তবে ব্যাপার যাই হোক, ব্যক্তিগত বিষয়গুলো সামনে এসে ঘটনা অনেক দূর এগিয়ে যাওয়ার পর বুধবার (২১ জুন) ইনস্টাগ্রামে খোলা চিঠি পোস্ট করেন নেইমার। সেখানে তিনি নিজের সন্তানসম্ভবা প্রেমিকার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন।

প্রেমিকা ব্রুনা বিয়ানকার্দির সঙ্গে নেইমার/ইনস্টাগ্রাম

নেইমার লেখেন, “ব্রু, আমি এটা তোমাদের (ব্রুনা বিয়ানকার্দি এবং অনাগত সন্তান) জন্য করছি। অসমর্থনীয় বিষয়কে যৌক্তিক বানানোর চেষ্টা করছি। এটা করার দরকার ছিল না। কিন্তু তোমাকে আমার জীবনে প্রয়োজন। আমি জানি, এসব ঘটনায় তুমি কতটা ভুগছো এবং কতটা আমার পাশে থাকতে চাও। আমিও তোমার পাশে আছি। আমি ভুল করেছি। তোমার সঙ্গে কাজটা ঠিক করিনি।”

অনুশোচনায় ভোগা ব্রাজিলিয়ান তারকা লেখেন, “বলতে ভয় নেই, আমি প্রতিদিনই ভুল করি। সেটা মাঠ ও মাঠের বাইরে। কিন্তু ব্যক্তিগত জীবনের ভুলগুলো আমি ঘরে বসে পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে নিয়ে ঠিক করি। আর এ সবকিছুই আমার জীবনে অন্যতম বিশেষ মানুষটির জন্য। আর সেই মানুষটি আমার স্বপ্নের নারী, আমার সন্তানের মা। বিষয়টি তার পরিবার এবং আমার পরিবারকেও পীড়া দিয়েছে। মাতৃত্বের এই বিশেষ মুহূর্তেও সে কষ্ট পেয়েছে।”

নিজের সন্তান সম্ভবা প্রেমিকার কাছে ক্ষমা চেয়ে পিএসজি ফরোয়ার্ড বলেন, “ব্রুনা, নিজের ভুলের জন্য আমি আগেই ক্ষমা চেয়েছি। অকারণে যে গুঞ্জন চলছে সে জন্য। কিন্তু আমি সবার সামনেই স্বীকার করছি, ব্যক্তিগত কোনো বিষয় যখন সামনে চলে আসে, তখন সে বিষয়ে সবার সামনেই ক্ষমা চাওয়া উচিত। তোমাকে ছাড়া আমি নিজেকে ভাবতে পারি না। অবশ্যই সন্তানের প্রতি আমাদের ভালোবাসা এবং যে লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছি, তাতে সফল হতে পারব। একে অপরের প্রতি ভালোবাসাই আমাদের আরও শক্তিশালী করবে।”


তবে যার সঙ্গে নেইমারের প্রেমের গুঞ্জন, সেই ফার্নান্দো কাম্পোস আবার বলছেন অন্য কথা। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ভালোবাসা দিবসের প্রাক্কালে ফার্নান্দো কাম্পোস সাও পাওলোতে নেইমারের সঙ্গে সময় কাটিয়েছিলেন। তবে ক্যাম্পোস তখন বিয়ানকার্দির সঙ্গে নেইমারের সম্পর্কের বিষয়ে কিছু জানতেন না। 

খুব দ্রুত প্রকৃত সত্য সামনে আনবেন জানিয়ে ফার্নান্দো কাম্পোস বলেন, “শিগগিরই আমি সবকিছু প্রকাশ করব এবং পুরো সত্য বলব, যা কারো খারাপ লাগতে পারে! আমি নরকের মধ্যে বাস করছি। চারদিক থেকে আক্রমণ করে আমাকে যা-তা বলা হচ্ছে। আমার কৃতকর্ম এবং বর্তমানে আমার করণীয় সম্পর্কে মাথা না ঘামানোর জন্য সবাইকে অনুরোধ করছি।”

ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের ইনফ্লুয়েন্সার ফার্নান্দো কাম্পোস/টুইটার

২৮ বছর বয়সী ব্রুনা সাও পাওলোর মডেল। তার নিজের কাপড়ের ব্র্যান্ড আছে। ২০২১ সাল থেকে নেইমার ও ব্রুনার মন দেওয়া–নেওয়ার শুরু। গত বছর জানুয়ারিতে ইনস্টাগ্রামে আনুষ্ঠানিকভাবে নিজেদের প্রেমের কথা জানান নেইমার। যদিও গত আগস্টেই একবার বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছিল দুজনের। তবে বাগদান সারলেও এই জুটি বিয়ের বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো কিছুই জানায়নি।

প্রেমিকা ব্রুনা বিয়ানকার্দির সঙ্গে নেইমার/ইনস্টাগ্রাম

ভালোবাসার টানে এ বছরের শুরুতে নতুন করে প্রেম শুরু করেন নেইমার ও ব্রুনা। গত ফেব্রুয়ারিতে নেইমারের ৩১তম জন্মদিনে নিজেদের ঘনিষ্ঠ ছবি পোস্ট করে ব্রুনা লিখেছিলেন, “শুভ জন্মদিন প্রিয়। আমি তোমাকে নিজের সব কথা বলেছি।”

এর আগে, মাত্র ১৯ বছর বয়সে সাবেক প্রেমিকা ক্যারোলিন দান্তেসের সঙ্গে সম্পর্ক থাকতেই প্রথম সন্তানের বাবা হন নেইমার। ডেভি লুকা নামে তার ১২ বছর বয়সী ছেলে আছে।

About

Popular Links