Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বর্ণবাদের অভিযোগে রফিকের পাশে দাঁড়ালেন ইংল্যান্ডের রশিদ

ইয়র্কশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের পাকিস্তানি সাবেক ক্রিকেটার রফিক আজিম বর্ণবাদী মন্তব্যের অভিযোগ তুলেছিলেন আরেক সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার মাইকেল ভনের বিরুদ্ধে

আপডেট : ১৬ নভেম্বর ২০২১, ০৭:১৪ পিএম

মাইকেল ভনের বিরুদ্ধে করা পাকিস্তানি ক্রিকেটার রফিক আজিমের বর্ণবাদের অভিযোগে সমর্থন দিয়েছেন ইংলিশ ক্রিকেটার আদিল রশিদ। সেই সঙ্গে তিনি বলেছেন, ভনের করা মন্তব্য তিনি নিজ কানে শুনেছেন। 

এর আগে ইয়র্কশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের সাবেক ক্রিকেটার রফিক আজিম বর্ণবাদী মন্তব্যের অভিযোগ তুলেছিলেন সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার মাইকেল ভনের বিরুদ্ধে। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

ইয়র্কশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবকে ঘিরে যে বর্ণবিদ্বেষের ঘটনা সামনে এসেছে, তা যত দিন যাচ্ছে তত বেশি জোরালো হচ্ছে। একের পর এক বিস্ময়কর ঘটনা সামনে এসে পড়ছে। তবে এই ঘটনায় যত দিন যাচ্ছে তত বেশি করে যেন বিপদের মধ্যে পড়ছেন মাইকেল ভন।

বর্ণবাদের অভিযোগের তদন্তে নাম আসার পরে বিবিসি এই মাসের শুরুতে ভনকে একটি রেডিও শো থেকেও বাদ দিয়েছিল।

আদিল রশিদ বলেছেন, বর্ণবাদ নির্মূলে তদন্ত কমিটি এবং সরকারকে সহায়তা করতে প্রস্তুত তিনি। ইংল্যান্ড জাতীয় দলের এই লেগস্পিনার বলেন, “বর্ণবাদ জীবনের সবক্ষেত্রে একটি ক্যান্সার। যেভাবেই হোক এটিকে নির্মূল করতে হবে। ভনের করা মন্তব্য আমি শুনেছি। সেই সঙ্গে আমি খুশি এই বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আমি সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি। এই তদন্তে সাহায্য করার জন্য আমি সবসময় প্রস্তুত আছি।”

২০০৯ সালের এক কাউন্টি ম্যাচে নটিংহ্যামশায়ারে বিরুদ্ধে খেলার সময় ভনের বিরুদ্ধে বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্য করার অভিযোগ আনেন রফিক। ম্যাচের আগে এশিয়ান খেলোয়াড়দের একটি দলকে বলেছিলেন যে “তোমরা একাধিক সংখ্যায় উপস্থিত। এই বিষয়টি নিয়ে কিছু করতে হবে।” ইংল্যান্ডের জাতীয় দল এবং ঘরোয়া ক্রিকেটে বেশি সংখ্যায় এশিয়ান ক্রিকেটারদের উপস্থিতি সম্পর্কে তিনি এই কথা বলেছিলেন বলে রফিকের অভিযোগ ছিল।

তবে বিবিসিকে দেওয়া এক বিবৃতিতে এ অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছিলেন ভন।

মাইকেল ভন বলেন, “আমার বিরুদ্ধে আজিম রফিকের অভিযোগকে অস্বীকার করছি। এছাড়া জনসমক্ষে এটি পুনরায় বলতে চাই যে আমি এমন কোনো মন্তব্য করিনি। এটি অত্যন্ত বিরক্তিকর যে আমার বিরুদ্ধে এরকম একটি সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে আমার সতীর্থ খেলোয়াড় দ্বারা।”

ইয়র্কশায়ারের চেয়ারম্যান কমলেশ প্যাটেল বলেন, “আমি আদিল রশিদের সাম্প্রতিক বিবৃতির বিষয়ে জেনেছি। আমি তার কথা বলার সাহসকে স্বাগত জানাই। ব্যক্তিগতভাবে আদিলের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। যাতে আমরা বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলতে পারি।”

About

Popular Links