Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

আসপাসের বিরুদ্ধে ইনজুরির কারণে স্বেচ্ছায় নিষেধাজ্ঞা পাওয়ার অভিযোগ

ইনজুরির কারণে মাঠ থেকে উঠে যাওয়ার আগে এই স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড ইচ্ছে করেই হলুদ কার্ড দেখে নিজেকে নিষেধাজ্ঞায় ফেলেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে

আপডেট : ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৩৫ পিএম

ঘটনাটি ম্যাচের ১১ মিনিটের। লা লিগায় ঘরের মাঠে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে ইয়াগো আসপাসের গোলে এগিয়ে যায় সেল্টা ভিগো। স্বভাবসুলভ গোল উদযাপনও করতে যাচ্ছিলেন তিনি।

কিন্তু গোল উদযাপনের সময়ে জার্সি খোলায় দেখতে হলো হলুদ কার্ড। হলুদ কার্ড দেখার মিনিট চারেক পরেই অবশ্য ইনজুরির কারণে মাঠ থেকে উঠে যেতে হয় সেল্টা ভিগো ফরোয়ার্ডকে।

এতটুক পর্যন্ত হয়ত ঘটনাটা স্বাভাবিকই ছিল। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে পরে কানাঘুষো শোনা গেলো অনেক রকম। এমনও শোনা যাচ্ছে আসপাস নাকি ইচ্ছে করে জেনে-বুঝেই নিজেকে নিষেধাজ্ঞায় ফেলেছেন!

ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে এ ম্যাচের আগে এ মৌসুমে চারটি হলুদ কার্ড দেখেছিলেন ইয়াগো আসপাস। আরেকটি হলুদ কার্ড দেখলে তাকে এমনিতেই এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পেতে হতো। স্প্যানিশ ফরোয়ার্ডও সেটি জানতেন।

এরই মাঝে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে দুর্দান্ত এক গোল করে দলকে এগিয়ে দেন ৩৪ বছর বয়সী এ স্ট্রাইকার। গোল করার সময়েই হালকা চোট পান আসপাস। কিছুক্ষণ পর উদযাপনের সময়ে এক সতীর্থের কানে কানে কিছু একটা বলেই নিজের জার্সি খুলে ফেলেন তিনি। জার্সি খুলে ফেলার পরেই চোটের সমস্যায় মটিতে শুয়ে পড়েন তিনি। কয়েক মিনিট তো আসপাস বদলি হয়েই উঠেই গেলেন। 

পঞ্চম হলুদ কার্ডের কারণে এক ম্যাচ নিষেধাজ্ঞায় থাকতে হবে স্প্যানিশ স্ট্রাইকারকে। ফলে রিয়াল মায়োর্কার বিপক্ষে সেল্টা ভিগোর পরের ম্যাচে আসপাস থাকবেন দর্শক হয়েই। নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরতে ফিরতে হয়ত ততদিনে চোটের সমস্যাও কাটিয়ে উঠবেন তিনি।

আসপাস ইচ্ছেকৃতভাবেই হলুদ কার্ড দেখে নিজেকে নিষেধাজ্ঞায় ফেলেছেন কি-না তা তিনিই ভালো বলতে পারবেন। তবে তার করা কাজটা যে যথেষ্ট বুদ্ধিদীপ্ত তা স্বীকার করতেই হবে। ইন্টারনেট ও সামাজিক যোগাযোমাধ্যমে অনেকেই আসপাসের এমন উপস্থিত বুদ্ধির প্রশংসা করছেন।

তবে আসপাস কাজটা করতে যতই চাতুর্যের আশ্রয় নিয়ে থাকুন না কেন, ইচ্ছেকৃতভাবে হলুদ কার্ড দেখে নিজেকে নিষেধাজ্ঞায় ফেলার ব্যাপারটি প্রমাণিত হলে তাকে বাড়তি শাস্তি পেতে হতে পারে। ২০১৯ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে ইচ্ছে করে হলুদ কার্ড দেখে নিজেকে নিষেধাজ্ঞায় ফেলায় বাড়তি দুই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন সার্জিও রামোস।

About

Popular Links