Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বিশ্বকাপ স্কোয়াডে তামিমের না থাকার কারণ হিসেবে যা বললেন নান্নু

তামিমকে ছাড়াই আসন্ন আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য স্কোয়াড ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১২:৩৬ পিএম

চোট এবং ফিটনেসের কারণে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে তামিম ইকবালের জায়গা পাওয়া নিয়ে অনেক রকম কথাই শোনা যাচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত চোট আর ফিটনেস সংক্রান্ত ইস্যুতেই দেশসেরা এই ওপেনারকে বিশ্বকাপের স্কোয়াডে রাখা হয়নি বলে জানালেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আসন্ন আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য স্কোয়াড ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ১৫ সদস্যের সেই স্কোয়াডে ৩৪ বছর বয়সী বাঁহাতি এই ওপেনারের জায়গা হয়নি।

তামিমকে বাদ দেওয়ার প্রসঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, “অনেক দিন ধরেই তামিম ইকবালের ইনজুরি শঙ্কা রয়েছে। সে সদ্য সমাপ্ত নিউজিল্যান্ড সিরিজে ফিরেছে। দ্বিতীয় ম্যাচ খেলার পর একটা অভিযোগ এসেছে। ওর ফিটনেসের কথা ভেবে ও চোটের ব্যাপারটি মাথায় নিয়েই ওকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রাখা হয়নি।”

জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক বলেন, “এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার (বিশ্বকাপের স্কোয়াডে তামিমকে না রাখার) আগে আমরা সার্বিকভাবে সবার সঙ্গেই কথা বলেছি। আমরা তামিম ও টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে আলোচনা করেছি। দীর্ঘ সময়ের বিশ্বকাপ ক্যাম্পেইনে কোনো ঝুঁকি নিতে চাইনি।”

তিনি আরও বলেন, “চোট নিয়ে আপনি ঝুঁকি নিতে পারেন না। বিশ্বকাপ চলাকালে কেউ চোটে পড়লে সেটা টিম ম্যানেজমেনকে অস্বস্তিকর অবস্থায় ফেলে দেবে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দুই ওয়ানডেতে সে মাঠে নেমেছিল। কিন্তু সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে তাকে বিশ্রাম দিতে হয়েছে।”

মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, “তামিম আমাদের সেরা খেলোয়াড়দের মধ্যে অন্যতম। কিন্তু চোটের কারণে তার সেরাটা পাওয়া যাচ্ছে না। সে দীর্ঘদিন ধরেই পিঠের চোটে ভুগছে। নিউজিল্যান্ড সিরিজে তাই তার ফিটনেস যাচাইয়ের সুযোগ ছিল। দ্বিতীয় ম্যাচের পুরোটা খেললেও শেষ ওয়ানডেতে সে খেলেনি। মেডিক্যাল টিমের সঙ্গে আলোচনা পরই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি।”

গত জুলাইয়ে ঘরের মাটিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ চলাকালে একরকম হুট করেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নেন তামিম। যদিও গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপে পরদিনই অবসর প্রত্যাহার করে নেন এই ক্রিকেটার। দেড় মাসের বিশ্রামে থাকার পর আগস্ট-সেপ্টেম্বরে পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠেয় এশিয়া কাপে দর্শক ছিলেন তামিম।

ঢাকায় নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সদ্য সমাপ্ত তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে আবার দলে ফেরেন তামিম। প্রথম ওয়ানডে বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হওয়ায় দেশসেরা এ ওপেনার ব্যাট হাতে নামার সুযোগ পাননি। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সাত বাউন্ডারিতে ৫৮ বলে ৪৪ রান করেন তামিম।

তবে ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তামিম জানান, ক্রিকেটে ফিরলেও এখনো তিনি অস্বস্তিতে ভুগছেন। এ কারণে বাঁহাতি এ ব্যাটারকে সিরিজের শেষ ম্যাচে তাকে বিশ্রামে রাখা হয়। শেষ পর্যন্ত চোট, অস্বস্তি আর ফিটনেস ইস্যু তামিমকে ছিটকে দিলো বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকেই।

About

Popular Links