Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বিশ্বকাপে কতটুকু সফল সাকিব?

ব্যাট হাতে শতক, অর্ধশতক আর বল হাতে উইকেট- বহু কীর্তি তার

আপডেট : ১০ অক্টোবর ২০২৩, ০৮:১১ পিএম

আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর্দা উঠেছে। তবে বাংলাদেশ এখনো মাঠে নামার অপেক্ষায়। শনিবার (৭ অক্টোবর) বাংলাদেশ সময় বেলা ১১টায় আফগানিস্তানের মুখোমুখি হওয়ার মাধ্যমে টাইগারদের বিশ্বকাপ অভিযান শুরু হবে।

সম্ভাবনাময় স্কোয়াড থাকার পরেও বাংলাদেশকে গত আসর শেষ করতে হয়েছিল হতাশা নিয়ে। তবে আগেরবারের দুঃস্বপ্নকে পেছনে রেখে এবার দারুণ কিছুর প্রত্যাশায় রয়েছে বাংলাদেশ দল।

এবারও বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ভরসার নাম সাকিব আল হাসান। যুক্তরাজ্যে আয়োজিত ২০১৯ বিশ্বকাপে রীতিমতো অতিমানবীয় ফর্মে ছিলেন এ বাঁহাতি অলরাউন্ডার। ৩৪ বছর বয়সী এ ক্রিকেটার সেই খেলাটা খেললে এই বিশ্বকাপেও বাংলাদেশ দারুণ কিছুর আশা করতেই পারে।

ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের মাঠে নামার আগে চলুন দেখে আসি টুর্নামেন্টের সাকিবের রেকর্ড ও কীর্তিগাঁথা:

- বিশ্বকাপের আগের তিন আসরের শুরুতে ওয়ানডে অলরাউন্ডার র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানে ছিলেন সাকিব। ব্যতিক্রম হচ্ছে না এবারের আসরেও। বিশ্বকাপ শুরুর আগে বুধবার প্রকাশিত আইসিসির ওয়ানডে অলরাউন্ডারের র‍্যাংকিংয়ের এক নম্বরে আছেন এ বাংলাদেশি ক্রিকেটার। ফলে ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ওয়ানডে ফরম্যাটে আইসিসির শীর্ষ অলরাউন্ডার হিসেবে টানা চতুর্থ বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছেন সাকিব।

- ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পক্ষে যৌথভাবে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার মালিক সাকিব। বিশ্বকাপের চারটি আসর মিলিয়ে এখন পর্যন্ত টাইগারদের পক্ষে ২৯টি ম্যাচে মাঠে নেমেছেন তিনি। তার পাশাপাশি উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিম এবং এবারের বিশ্বকাপের স্কোয়াডে জায়গা না পাওয়া ওপেনার তামিম ইকবালও সমানসংখ্যক ম্যাচ খেলেছেন।

- ওয়ানডে বিশ্বকাপের মঞ্চে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক সাকিব। ২০০৭ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত টাইগারদের পক্ষে চারটি বিশ্বকাপ খেলেছেন এ বাঁহাতি ব্যাটার। এই চার আসরে ২৯টি ম্যাচ খেলে প্রতিটি ইনিংসে ব্যাট হাতে নেমে ৪৫.৮৪ গড়ে ৮২.২৬ স্ট্রাইক রেটে তিনি ১,১৪৬ রান করেছেন। এর মধ্যে সাকিবের ব্যাট থেকে দুটি সেঞ্চুরি আর ১০টি ফিফটি এসেছে। 

- ওয়ানডে বিশ্বকাপে শুধু রান সংগ্রহের দিক থেকেই না, উইকেট শিকারের দিক থেকেও বাংলাদেশের পক্ষে সবার ওপরে আছেন সাকিব। ২০০৭ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত খেলা চারটি বিশ্বকাপে ২৯টি ম্যাচের প্রতিটি ইনিংসে বল হাতে নিয়ে ৩৫.৯৪ গড়ে ও ৫.১১ ইকোনমি রেটে ৩৪টি উইকেট পেয়েছেন এ বাঁহাতি স্পিনার। একবার করে চার ও পাঁচ উইকেটও শিকার করেছেন তিনি।

- ওয়ানডে বিশ্বকাপের এক আসরে ন্যুনতম ৬০০ রান সংগ্রহ ও ১০ উইকেট শিকারের কীর্তি আছে শুধু সাকিবেরই। গত বিশ্বকাপের ৮ ম্যাচে ৮৬.৫৭ গড়ে সাকিবের ব্যাট থেকে এসেছিল ৬০৬ রান। যা আসরের তৃতীয় সর্বোচ্চ। সেই সঙ্গে বল হাতে ৩৬.২৭ গড়ে ১১ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি।

- ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সেরা বোলিং ফিগারের মালিক সাকিব। ২০১৯ সালে লিগপর্বে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১০ ওভার বোলিং করে একটি মেডেনসহ ২৯ রানের খরচায় পাঁচ উইকেট নেন এ বাঁহাতি স্পিনার। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পক্ষে প্রথমবারের মতো পাঁচ উইকেট শিকারের কীর্তিও সাকিবেরই।

- ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পক্ষে যৌথভাবে সর্বোচ্চ দুটি সেঞ্চুরির মালিক সাকিব। ২০১৯ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড (১২১) আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের (অপরাজিত ১২৪) বিপক্ষে শতক হাঁকিয়েছিলেন এ বাঁহাতি ব্যাটার। সাকিব ছাড়াও ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পক্ষে দুটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ২০১৫ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেন এ ডানহাতি অলরাউন্ডার।  

- ওয়ানডে বিশ্বকাপের এক আসরে সর্বোচ্চ পঞ্চাশোর্ধ্ব ইনিংস খেলার রেকর্ডে ভারতীয় কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারের সঙ্গে যৌথভাবে শীর্ষে আছেন সাকিব। ২০১৯ বিশ্বকাপে ৮টি ম্যাচে ব্যাট হাতে নেমে সাতটি পঞ্চাশোর্ধ্ব (দুটি সেঞ্চুরি ও পাঁচটি ফিফটি) ইনিংস খেলেছিলেন এ বাঁহাতি ব্যাটার। ২০০৩ বিশ্বকাপে একই কীর্তি গড়েছিলেন টেন্ডুলকারও, যদিও সাকিবের চেয়ে তিনি তিনটি ম্যাচ বেশি খেলেছিলেন।

- ওয়ানডে বিশ্বকাপের একই ম্যাচে ব্যাটিয়ে অর্ধশতক ও বোলিংয়ে পাঁচ উইকেট নেওয়া দুই খেলোয়াড়ের মধ্যে অন্যতম সাকিব। ২০১৯ সালে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ব্যাট হাতে ৫১ রানের ইনিংস খেলেন সাকিব। পরে বল হাতেও ২৯ রানের খরচায় ৫ উইকেট নিয়েছিলেন এ বাঁহাতি স্পিনার। এর আগে, ২০১১ বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের যুবরাজ সিং ৩১ রানে ৫ উইকেট শিকারের পর অপরাজিত ৫০ রানের ইনিংস খেলেন।

About

Popular Links