Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মার্করামকে ফেরালেন সাকিব, জুটি ভাঙায় বাংলাদেশের স্বস্তি

তৃতীয় উইকেটে ১৩১ রানের জুটি গড়েন ডি কক ও মার্করাম

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২৩, ০৪:৫৯ পিএম

প্রথম পাওয়ারপ্লেতে দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু ওপেনার কুইন্টন ডি কক আর এইডেন মার্করামের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়িয়েছে প্রোটিয়ারা। ফিফটি তুলে নেওয়ার মাধ্যমে তৃতীয় উইকেটে দুজনের বড় জুটিতে দক্ষিণ আফ্রিকানরা বড় সংগ্রহের দিকে এগোচ্ছিল।

অবশেষে মার্করামকে ফিরিয়ে জমাট বাঁধা জুটি ভেঙে বাংলাদেশ শিবিরে স্বস্তি এনে দিয়েছেন অধিনায়ক সাকিব। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৩২ ওভার শেষে তিন উইকেট হারিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ১৭৪ রান। উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি কক ৯৫ রানে অপরাজিত আছেন। অন্যদিকে, হেনরিক ক্লাসেন ৩ রানে ব্যাট করছেন।

মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর) মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নামা দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই রেজা হেন্ড্রিকসকে ফেরানোর সুযোগ এসেছিল বাংলাদেশের সামনে। প্রোটিয়াদের বিপদে ফেলতে দ্বিতীয় ওভারেই স্পিনার এনেছিলেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব। মেহেদি হাসান মিরাজের ওই ওভারের পঞ্চম বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়েছিলেন ০ রানে থাকা হেন্ড্রিকস। কিন্তু তানজিদ হাসান তামিম সেই ক্যাচ তালুবন্দি করতে পারেননি।

তবে জীবন পেয়েও বেশিদূর এগোতে পারেননি হেন্ড্রিকস। ষষ্ঠ ওভারে শরীফুল ইসলামের ফুললেংথ থেকে ভেতরের দিকে ঢোকা বল পুরোপুরি মিস করে বোল্ড হন প্রোটিয়া ওপেনার। রানের খাতা খোলার আগে জীবন পেয়ে ১৮ বলে ১২ রান করেন এ দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটার।

অষ্টম ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংসে আরেক দফা আঘাত হানেন মিরাজ। ডানহাতি এ স্পিনারের ঘূর্ণিতে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন ৭ বল খেলে ১ রান করা রাসি ফন ডার ডুসেন। ফলে চলমান ওয়ানডে বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো পাওয়ারপ্লেতে একাধিক উইকেট হারিয়েছে প্রোটিয়ারা।

তবে পাওয়ারপ্লে শেষ হওয়ার পরের দশ ওভারে পাল্টা আক্রমণ শুরু করেন ডি কক ও মার্করাম। শুরু থেকেই মারমুখী ব্যাটিং করা ডি কক ক্যারিয়ারের ৩০তম ফিফটি তুলে নিয়ে বিশ্বকাপে তৃতীয় সেঞ্চুরির দিকে এগোচ্ছেন। অন্য প্রান্তে সাবলীল মেজাজে থাকা মার্করামও হাফ সেঞ্চুরির মাধ্যমে তাকে যোগ্য সঙ্গ দিচ্ছিলেন।

তৃতীয় উইকেটে ডি কক আর মার্করামের ১৩১ রানের জুটি ভাঙতে বিভিন্ন বোলারকে আক্রমণে এনে চেষ্টার ত্রুটি রাখছিলেন না সাকিব। শেষ পর্যন্ত তিনি নিজেই জুটি ভাঙেন। উঠিয়ে মারতে গিয়ে সীমানার কাছে লিটন দাসের হাতে ক্যাচ দেন মার্করাম। ৬৯ বলে সাতটি চারে ৬০ রান করেন এ ডানহাতি ব্যাটার।

About

Popular Links