Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

আইসিসির কাছে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আবেদন মেন্ডিসের

  • গত ১০ নভেম্বর  শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের সদস্যপদ স্থগিতের ঘোষণা দেয় আইসিসি
  • বোর্ডের ওপর সরকারি হস্তক্ষেপের অভিযোগ
আপডেট : ১২ নভেম্বর ২০২৩, ০৯:১০ পিএম

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলে সদস্যপদ স্থগিতের আদেশ প্রত্যাহারের আবেদন করেছেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক কুশল মেন্ডিস।

রবিবার (১২ নভেম্বর) কলম্বোতে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আবেদন করেন তিনি।

তিনি বলেন, “এটা আমাদের পেশা এবং আমরা কিছু না করে ঘরে বসে থাকতে পারি না। আমরা অনুশীলন শুরু করতে চাই কারণ সামনের বছর বেশ কিছু সফর আছে।”

গত ১০ নভেম্বর রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) জানায়, বোর্ডের ওপর সরকারি হস্তক্ষেপের কারণে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের সদস্যপদ স্থগিত করা হয়েছে।

বাজে পারফরম্যান্সের কারণে গত ৬ নভেম্বর শ্রীলঙ্কার পুরো ক্রিকেট বোর্ডকে বরখাস্ত করেছিলেন ক্রীড়ামন্ত্রী রোশান রানাসিংহে। গঠন করা হয়েছিল অন্তর্বর্তীকালীন নতুন কমিটি। তবে এর একদিন না যেতেই ৭ নভেম্বর ক্রীড়ামন্ত্রীর সিদ্ধান্ত বাতিল করে শ্রীলঙ্কার আপিল আদালত। কিন্তু বিষয়টি ভালোভাবে নেয়নি আইসিসি। শুক্রবার জরুরি সভা আহ্বান করে আইসিসি বোর্ড। সেখানে আলোচনার মাধ্যমে বোর্ড সিদ্ধান্ত নেয়, শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে আছে। বিশেষ করে স্বাধীনভাবে কাজ করার ক্ষেত্রে।

বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি এক বিবৃতিতে জানায়, আইসিসি বোর্ড আজ বৈঠকে বসে ঠিক করেছে যে, শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট একটি সদস্য হিসেবে তার প্রতিশ্রুতির গুরুতর লঙ্ঘন করছে। বিশেষ করে, স্বায়ত্তশাসিতভাবে তার বিষয়গুলো পরিচালনা করার প্রয়োজনীয়তা এবং শাসন, প্রবিধান এবং প্রশাসনে কোনো সরকারি হস্তক্ষেপ নেই তা নিশ্চিত করতে পারেনি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট। এ কারণে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

রবিবার মেন্ডিস বলেন, “খেলোয়াড় হিসেবে এসবের ওপর আমাদের নিয়ন্ত্রণ ছিল না। অধিনায়ক হিসেবে আমি শুধু এটার (নিষেধাজ্ঞা) অপসারণ আশা করি, যেন আমরা আবার আমাদের খেলা শুরু করতে পারি।”

অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিতাদেশ পাওয়া শ্রীলঙ্কা জানুয়ারিতে অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের আয়োজক। ওই আয়োজনে নিষেধাজ্ঞা কোনো প্রভাব ফেলবে কি-না বিষয়টি পরিস্কার নয়।

দলের ম্যানেজার মাহিন্দা হালাঙ্গোদা বলেন, “শ্রীলঙ্কার খেলোয়াড়দের স্বাভাবিক থাকতে বলা হয়েছে।”

তিনি বলেন, “খেলোয়াড়দের সঙ্গে টিম ম্যানেজমেন্টের আলোচনা হয়েছিল এবং তাদের ক্রিকেটে মনোযোগ ধরে রাখতে বলা হয়েছে।”

বিশ্বকাপে নয়টি ম্যাচের মধ্যে শ্রীলঙ্কা মাত্র দুটি জিতেছে। দশ দলের খেলায় তারা আছে নয় নম্বরে। এরইমধ্যে তারা বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়েছে।

১৯৮১ সালে আইসিসির পূর্ণ সদস্যপদ পায় শ্রীলঙ্কা। এই বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার পারফরম্যান্স বাজে। এমনকি পয়েন্ট টেবিলের নয় নম্বরে থাকায় আগামী ২০১৫ সালে পাকিস্তানে অনুষ্ঠিতব্য চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলার যোগ্যতা হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা।

About

Popular Links